লিবিয়াতে আমেরিকার কনস্যুলেটে হামলার নিন্দা করা হয়েছে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদে, যার ফলে রাষ্ট্রদূত ক্রিস্টোফার স্টিভেন্স ও আরও তিনজন দূতাবাসের কূটনীতিবিদ নিহত হয়েছেন. এই বিষয়ে ঘোষণা করেছেন রাষ্ট্রসঙ্ঘের মহাসচিবের সহকারী জেফরি ফেল্টম্যান, লিবিয়া নিয়ে নিরাপত্তা পরিষদের অধিবেশনে বক্তৃতা দিতে গিয়ে. তাঁর কথামতো, এই ঘটনা লিবিয়াতে দেশের সরকারের নিয়ন্ত্রণের বাইরে থাকা অস্ত্র কারবারের পরিণতি. নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতি ও রাষ্ট্রসঙ্ঘে জার্মানীর স্থায়ী প্রতিনিধি পিটার ভিট্টিগ লিবিয়াতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কনস্যুলেটে হামলার বিষয়ে এই আন্তর্জাতিক সংগঠনের নিরাপত্তা পরিষদের পক্ষ থেকে সমালোচনা প্রকাশ করেছেন. বেনগাজী শহরে আমেরিকার কূটনীতিজ্ঞরা নিহত হয়েছেন মঙ্গলবারে. সশস্ত্র জঙ্গীরা আমেরিকার কাছের এক খামর বাড়ী থেকে কনস্যুলেটে আক্রমণ করে গুলি চালনা করে ও গ্রেনেড ছোঁড়ে. এই ধরনের একটি গ্রেনেড সেই গাড়ীতে বিস্ফোরিত হয়েছিল, যেটিতে এই কূটনীতিজ্ঞরা ছিলেন. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে “মুসলমানদের দোষ নেই” নামে একটি সিনেমা তোলার খবর প্রকাশের পরেই কনস্যুলেটে আক্রমণ করা হয়েছিল, এই ফিল্মে মুসলিম ধর্মের অবতার মহম্মদকে খুবই ন্যক্কার জনক ভাবে দেখানো হয়েছে.