আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন “এম.কা.এস-৩২”-এর কম্যান্ডার গেন্নাদি পাদালকা এবং তাঁর সহকর্মী সের্গেই রেভিন, যাঁরা জোসেফ আকাবা-র সাথে ১৭ই সেপ্টেম্বর পৃথিবীতে ফিরবেন “সোয়ুজ তে.এম.আ-০৪এম” মহাকাশযানে, পৃথিবীর মাধ্যাকর্ষণ শক্তিতে অভ্যস্ত হওয়ার জন্য প্রস্তুত হচ্ছেন. মস্কোর উপকণ্ঠে মহাকাশযাত্রা নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্রে ইতার-তাস সংবাদ এজেন্সিকে জানানো হয়েছে যে, মঙ্গলবার মহাকাশচারীরা পালা করে পৃথিবীর মাধ্যাকর্ষণের অনুকরণকারী বিশেষ “চিবিস” সরঞ্জামে অনুশীলন করবেন. ছয় মাস ওজনবিহীনতার পরিবেশে থাকা কালে মাংসপেশী অচল হয়ে যায়, সেইজন্য মহাকাশচারীদের শরীরকে আগে থেকে প্রস্তুত করতে হয় পার্থিব পরিবেশে আসার জন্য, বলেন চিকিত্সাবিজ্ঞানী দলের পরিচালিকা ইরিনা আলফিওরোভা. হার্মেটিক “ট্রাউজার্স” “চিবিস” শরীরের নিম্নাংশে নেতিবাচক চাপ সৃষ্টির দ্বারা পৃথিবীর মাধ্যাকর্ষণের ফল অর্জনে সাহায্য করে. তাছাড়া পৃথিবীতে ফেরার দু সপ্তাহ আগে থেকে মহাকাশচারীরা খাবারে বিশেষ বস্তু যোগ করেন, এবং অবতরণের দিন – লবণের সরবত্, যাতে অবতরণের সময় শরীর থেকে জল বের হতে শুরু না হয়.