এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অর্থনৈতিক সহযোগিতা সংস্থার সপ্তাহ ব্যাপী শীর্ষ সম্মেলন রাশিয়ার সভাপতিত্বে ভ্লাদিভস্তকের রুস্কি দ্বীপে ২রা সেপ্টেম্বর রবিবার থেকে শুরু হয়েছে. এই সপ্তাহ ধরেই এই সংস্থার শীর্ষ স্থানীয় নেতাদের চূড়ান্ত বৈঠক গুলি হবে, একই সঙ্গে হবে কার্যকরী পরামর্শদাতা পরিষদের আলোচনা সভাও. তাছাড়া, এই সম্মেলনের মধ্যেই সদস্য রাষ্ট্র গুলির পররাষ্ট্র মন্ত্রী পর্যায়ে ও বাণিজ্য মন্ত্রী পর্যায়ে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে. ৭- ৮ ই সেপ্টেম্বর সংস্থার সম্মেলনের মধ্যেই ব্যবসা সংক্রান্ত শীর্ষ বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছে এবং সম্মেলন শেষ হবে এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকার রাষ্ট্র গুলির রাষ্ট্রীয় নেতা ও মন্ত্রীসভার প্রধানদের বৈঠক দিয়ে. এই অনুষ্ঠানের মধ্যেই রাশিয়ার প্রস্তাবিত সমস্ত মুখ্য বিষয় গুলি নিয়েই কাজ হবে. সেই বিষয় গুলির মধ্যে রয়েছে বাণিজ্যের পথে বাধা দূর করা ও বিনিয়োগের পথে অন্তরায় দূর করা, আঞ্চলিক অর্থনৈতিক সমাকলন, খাদ্য নিরাপত্তা মজবুত করা, ভরসা যোগ্য পরিবহন ও মালপত্রের গতি বিধি নিয়ন্ত্রণের শৃঙ্খল তৈরীর ব্যবস্থা করা, পারস্পরিক সহযোগিতা বৃদ্ধি, যাতে উদ্ভাবনী প্রযুক্তির উন্নতি করা সম্ভব হয়. এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অর্থনৈতিক সহযোগিতা সংস্থার বহু পাক্ষিক আলোচনার সময়ে নেতারা মতামত বিনিময়ের সুযোগ পাবেন এবং বাস্তব সমস্যা গুলির সমাধান খোঁজার চেষ্টা করবেন. এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অর্থনৈতিক সহযোগিতা সংস্থার সপ্তাহ ব্যাপী শীর্ষ সম্মেলনের ফলাফলে এক সম্মিলিত ঘোষণা করা হবে, যা পারস্পরিক সহযোগিতা নীতি সংক্রান্ত ব্যাখ্যা দেবে ও পরবর্তী সময়ের অর্থনৈতিক উন্নতির রূপরেখা নির্ণয় করবে. সব মিলিয়ে এই শীর্ষ সম্মেলনের কাজে যোগ দেবেন প্রায় ১০ হাজার মানুষ. তাঁদের মধ্যে থাকবেন ২১টি দেশের শীর্ষ নেতৃত্ব.