স্টুডিওয় ভাষ্যকার রথীন্দ্রনাথ চ্যাটার্জ্জি.

আজ আমরা আপনাদের ক্লাবের ক্লাবের ঠিকানায় আসা চিঠিপত্রের সম্পর্কে জানাবো.

ক্লাবের কুইজ কন্টেস্টের সম্মন্ধে বলবো

আর ভারতে রাশিয়ার প্রখ্যাত লেখকদের রচনাবলী প্রকাশ সম্পর্কে জানাবো.

 

প্রিয় শ্রোতারা, প্রায় প্রত্যেক দিন আমরা ‘রেডিও রাশিয়ার ক্লাব সদস্যদের প্রতিযোগিতা’ শীর্ষক চিঠি পাই. এটা আমাদের ক্লাবের সবচেয়ে সক্রিয় ইন্টারনেট ইউজারদের জন্য ও ক্লাবের কার্যকলাপের উপর সবচেয়ে আকর্ষনীয় ফোটো প্রতিযোগিতা.

বিহারের সীতামারী থেকে ‘রাজবাগ রেডিও ক্লাবের’ প্রধান অতুল কুমারের কাছ থেকে ই-মেইলে প্রত্যেকদিন খবরাখবর আসে. তার কাছ থেকে সর্বশেষ বার্তা – লন্ডনে রাশিয়ার ক্রীড়াবিদদের পদক পাওয়ার জন্য অভিনন্দন জানিয়েছেন ও প্যারা অলিম্পিকে আমাদের ক্রীড়াবিদদের শুভেচ্ছা কামনা করেছেন লন্ডনে.

অতুল কুমার উল্লেখ করেছেন – “আমি বিশেষ আগ্রহের সাথে আমি ইন্দো-রুশী সহযোগিতা বিষয়ক সাইটগুলির খবরাখবর অধ্যয়ন করি, সংস্কৃতির ব্যাপারে আমাদের দুইদেশের যোগাযোগের ওপর লক্ষ্য রাখি”.

বাস্তবিকই, ইন্দো-রুশী সাংস্কৃতিক যোগাযোগ সম্প্রসারিত হচ্ছে. আমরা এই সম্পর্কে সাইটে জানাই. সম্প্রতি মস্কোয়, সেন্ট-পিটার্সবার্গে ও নিঝনি নোভগোরদে দক্ষিণ ভারতের ‘কর্ণাট্রিক্স’ গ্রুপ সঙ্গীত পরিবেশন করে গেল. রাশিয়ার রাজধানীতে হিন্দুস্তানী সমাজের ৫৫-তম বার্ষিকী উপলক্ষ্যে ভারতীয় ধ্রুপদী সঙ্গীতকারদের অনুষ্ঠান হল.

প্রিয় বন্ধুরা, সাম্প্রতিক কোন সব সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠাণ আপনাদের পছন্দ হয়েছে? এই সম্পর্কে আমাদের লিখুন বিষদে. আপনাদের অনুভুতি বিস্তারিতভাবে জানান.

ইদানীং পাওয়া ফোটোগুলির মধ্যে বিশেষ করে উল্লেখ করতে চাই মুর্শিদাবাদের Natun Radio Lisners’ Club এর প্রধান কাঞ্চন কুমার চ্যাটার্জি রবীন্দ্রজয়ন্তীর উপর ও অরিহান্ত নগরের World Radio Listeners’ Club এর সদস্যরা নতুন নতুন ফোটো পাঠিয়েছেন. প্রিয় বন্ধুরা, আমরা খুশী, যে ফোটো প্রতিযোগিতায় লোকে এত সক্রিয়ভাবে অংশ নিচ্ছে. বিচারকেরা প্রতিযোগিতার ফলাফল জানানোর আগে এই সবকিছু গণ্য করবেন. মনে করিয়ে দিতে চাই, যে সেপ্টেম্বরের শেষে প্রতিযোগিতা সমাপ্ত হবে ও আমরা বিজয়ীদের জন্য পুরস্কার পাঠানোর ব্যবস্থা করছি.

বিহারের বর্মা শহরের রেডিও ক্লাবের সভাপতি ও আমাদের বহুকালের শ্রোতা কৃষ্ণ মুরারি সিং কিসানকে আমরা অভিনন্দন জানাচ্ছি.

তিনি জানিয়েছেন, যে দিল্লীতে সাহিত্য এ্যাকাডেমি তার ‘আঙ্গিক ও কিছু প্রবাদবাক্য’ নামক বই প্রকাশ করেছে. আর তারপরে তিনি ‘সাধারন মানুষের কন্ঠস্বর’ নামক কবিতা সংকলন প্রস্তুত করেছেন.

আমাদের আরও একজন নিয়মিত শ্রোতা উত্তরপ্রদেশের শাহজাহানপুর থেকে অবসরপ্রাপ্ত সামরিক কর্মী হরিবংশ যোগী মনে করিয়ে দিয়েছেন, যে তিনি ১৯৫৫ সাল থেকে আমাদের বেতার সম্প্রচারন শুনছেন, যখন তিনি তিব্বতে সার্ভিস করতেন. তিনি উল্লেখ করেছেন, যে এখনো পর্যন্ত তিনি সাপ্তাহিক অনুষ্ঠানগুলো ও সঙ্গীতানুষ্ঠানগুলো শোনার চেষ্টা করেন.

হরিবংশ যোগী কৃষ্ণ মুরারী সিংয়ের মতোই শুধুমাত্র নিয়মিত আমাদের অনুষ্ঠান শোনেন না, আমাদের অনুষ্ঠান সম্মন্ধে মতপ্রকাশ করেন না, তারা শ্রোতাদের সম্মেলনেও যোগ দেন নিয়মিত. প্রিয় বন্ধুরা আগামী ডিসেম্বর মাসে নয়াদিল্লীতে আমাদের বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি ভবনে আমরা আমাদের শ্রোতাদের পরবর্তী সম্মেলনের আয়োজন করবো বলে ঠিক করেছি.

পাকিস্তান থেকে সুসংবাদ এসেছে. Liyyah Listners’ Club এর তরফ থেকে ফাহাদ খান লিখেছেন, যে তারা পাকিস্তানে রেডিও রাশিয়ার সব শ্রোতাকে ঐক্যবদ্ধ করার জন্য All Pakistan Association of Listentrs এর পত্তন করতে চলেছেন.

ফাহাদ খান, আপনাদের আইডিয়াটা খুব ভালো, কি দিয়ে সংস্থার কার্যকলাপ শুরু করবেন, সে বিষয়ে আমাদের জানাতে ভুলবেন না.

পাকিস্তানের শেখপুরা থেকে রানা নাওয়িদ ও বাহার শাহ জানিয়েছেন, যে প্রায়ই আমাদের উর্দু সাইটে তারা যান. তারা বিশেষ করে রাজনৈতিক ও ক্রীড়াবিষয়ক আমাদের খবর ও প্রবন্ধগুলো পছন্দ করেন. আমাদের এইসব বিষয়ে আপনাদের ছাপানো ফোটো খুব ভালো লাগে – লিখেছেন তারা.

বাংলাদেশের চট্টগ্রাম জেলার আব্দুর রাজ্জাক আমাদের সাইট সম্পর্কে বেশ সমালোচনা করে থাকেন, কারণ পেশায় তিনি সাংবাদিক ও বেতার ভাষ্যকার. শ্রদ্ধেয় আব্দুর রাজ্জাক, আমাদের সাইট সম্মন্ধে আপনার মতামত আমাদের জন্য অত্যন্ত মূল্যবান.

বাংলাদেশের শিরাঞ্জগঞ্জের মোশিপুর থেকে শিউলি খাতুন জানিয়েছেন, যে গত ৪ বছর ধরে প্রত্যহ আমাদের বেতার অনুষ্ঠান শোনেন বন্ধুবান্ধবদের সাথে. আর ইদানীং সাইটেও খবরাখবর সংগ্রহ করেন. তিনি নারীদের জন্য আলাদা অনুষ্ঠান শুরু করার অনুরোধ জানিয়েছেন আমাদের.

আরও একটা চিঠি আমরা পেয়েছি সদ্য. বাংলাদেশের নওগাঁ থেকে রানা দেওয়ান রফিকুল কিরকম ব্যাপকভাবে বাংলাদেশে ঈদ উদ্যাপন করা হয়েছে, সে সম্পর্কে লিখেছেন.

ঐ উত্সব রাশিয়াতেও ষোড়োসোপচারে উদযাপন করা হয়েছে. রানা দেওয়ান, আপনি আমাদের সাইটে যান, সবিস্তারে সবকিছু এই সম্মন্ধে জানতে পারবেন.

এবার আমাদের সব নিয়মিত শ্রোতা ও পত্রপ্রেরকদের জন্য আমরা একটা আধুনিক রুশী গান শোনাচ্ছি.

রেডিও রাশিয়ার শ্রোতাদের ক্লাবের অধিবেশন এখানেই শেষ করছি. আমরা বিদায় নিচ্ছি, প্রিয় বন্ধুরা. আমরা আমাদের ই-মেইল ঠিকানা মনে করিয়ে দিচ্ছি. letters@ruvr.ru