0রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সম্পাদক বান কি মুন তেহেরানে জোট-নিরপেক্ষ আন্দোলনের শীর্ষ সাক্ষাতে অংশগ্রহণের জন্য, এ সফরে না যাওয়ার জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইস্রাইলের প্রচেষ্টা সত্ত্বেও. সাধারণ সম্পাদকের সহকারী ফারহান হকের কথায়, সাধারণ সম্পাদক “শান্তি ও নিরাপত্তার অতি গুরুত্বপূর্ণ সব প্রশ্নের সমাধানের স্বার্থে সমস্ত সদস্য দেশের সাথে কূটনীতি বিকাশ সম্বন্ধে নিজের দায়িত্বের প্রতি বিশেষ গুরুত্ব দেন”. প্রায় ১২০টি দেশের রাষ্ট্রপ্রধানদের অংশগ্রহণে এ শীর্ষ সাক্ষাত্ শুরু হয়েছে দু দিন আগে এবং শেষ হবে শুক্রবার. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইস্রাইল বান কি মুন-কে নির্দেশ করেছে যে, ইরান তার পারমাণবিক কর্মসূচির জন্য আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞার কবলে রয়েছে. কিন্তু রাষ্ট্রসঙ্ঘের পরিচালক বলেছেন যে, সিরিয়ায় সঙ্কট মীমাংসায় ইরানের সম্ভাব্য সাহায্য আলোচনা করতে চান.