সেপ্টেম্বরের শেষ নাগাদ মিশরের নতুন সংবিধান নিয়ে গণভোট হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী হিশাম কান্দিল. ‘মেনা’ সংবাদসংস্থা জানাচ্ছে, যে ভোটের নির্ধারিত তারিখ তিনি জানাননি. প্রত্যাশা করা হচ্ছে যে, নতুন সংবিধানে ইসলাম ধর্মের ভূমিকা ও রাষ্ট্রপতির ক্ষমতাসীমা নির্ধারন করা হবে. মিশরে নতুন সংবিধান জারী করার প্রক্রিয়া কয়েকবার ভন্ডুল হয়ে গেছিল. প্রথমবার সংবিধান প্রনয়ণ করেছিল ইসলামী সংখ্যাগরিষ্ঠ সংসদ. তখন উদারপন্থীরা দু-দুবার প্রতিবাদস্বরূপ কমিটি থেকে বেরিয়ে গেছিল. সংসদের পতন হওয়ার পরে দেশের সর্বোচ্চ সামরিক বাহিনী সংবিধান প্রনয়ণের কাজ নিজের হাতে তুলে নিয়েছিল. তারপরে রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ মুর্সী শীর্ষ সামরিক নেতাদের পদচ্যুত করেছে.