মিশরের রাষ্ট্রপতি মুহম্মেদ মুর্সি রবিবার জুন মাসে গৃহীত সাংবিধানিক ঘোষণাপত্রের কার্যকারিতা বাতিল করেছেন, যাতে দেশের সশস্ত্র বাহিনীর সর্বোচ্চ পরিষদকে যথেষ্ট ক্ষমতা দেওয়া হয়েছিল. মুর্সি প্রাক্তন বিচারক মাহমুদ মুহাম্মেদ মেক্কি-কে উপ-রাষ্ট্রপতির পদে নিযুক্ত করেছেন. তাছাড়া, তিনি প্রতিরক্ষামন্ত্রী হুসেইন তান্তাউই-কে এবং সামরিক সদর দপ্তরের অধিকর্তা সামি আনন-কে অবসরে পাঠিয়েছেন. এখন থেকে তাঁরা রাষ্ট্রপতির উপদেষ্টার পদ অধিকার করবেন. মুর্সি টেলি-সম্প্রচারে বক্তৃতা দিয়ে নিজের নির্দেশনামা ব্যাখ্যা করেন “সামরিক অধিনায়কমন্ডলীতে অপেক্ষাকৃত কম বয়সের লোকেদের আনার প্রচেষ্টা” হিসেবে. রাষ্ট্রপতি উল্লেখ করেন যে, এ রদ-বদল করা হয়েছে “মিশরের স্বার্থে” এবং কোনো রাজনৈতিক শক্তিকে অপমান করা বা দুর্বল করার উদ্দেশ্যে নয়. মুর্সির নির্দেশনামাকে বিবেচনা করা হচ্ছে রাষ্ট্রপতি ও সামরিক অধিনায়কদের মাঝে “দ্বি-শাসনের সমাপ্তি” হিসেবে এবং মিশরে “অন্তর্বর্তী কালের সম্পূর্ণ সমাপ্তি” হিসেবে. রাষ্ট্রপতির সিদ্ধান্তের সমর্থনে হাজার হাজার মানুষ মিশরের রাজধানী কায়রোর তহরির স্কোয়ারে সমবেত হয়.