সিরিয়া সম্পর্কে রাষ্ট্রসঙ্ঘ ও আরব রাষ্ট্র লীগের বিশেষ প্রতিনিধি কোফি আননের পদত্যাগ তুরস্কের কর্তৃপক্ষের জন্য অপ্রত্যাশিত নয়, বলেছেন তুরস্কের প্রধানমন্ত্রীর পররাষ্ট্রনীতি সংক্রান্ত সহকারী ইব্রাহিম কালীন. নিজের তরফ থেকে তুরস্কের পার্লামেন্টের আন্তর্জাতিক ব্যাপার সংক্রান্ত কমিশনের প্রধান ভোলকান বজকীর নিজের “টুইটারে” উল্লেখ করেছেন যে, “সিরিয়ায় সঙ্কট মীমাংসা সম্পর্কে আননের পরিকল্পনা গোড়া থেকেই জীবনীশক্তি-হীন ছিল”. তুরস্কের প্রচার মাধ্যমের উদ্ধৃতি দিয়ে এ সম্বন্ধে জানিয়েছে “রিয়া নোভস্তি” সংবাদ এজেন্সি. কোফি আনন এর প্রাক্কালে বলেছেন যে ৩১শে আগস্ট থেকে তিনি সিরিয়া সম্পর্কে রাষ্ট্রসঙ্ঘ ও আরব রাষ্ট্র লীগের বিশেষ প্রতিনিধির পদ ত্যাগ করতে চান, যে পদে তাঁকে অনুমোদন করা হয়েছিল ফেব্রুয়ারী মাসে. আননের কথায় তিনি পদত্যাগ করছেন, কারণ সিরিয়া সঙ্কটের সামরিকীকরণ এবং সিরিয়া সম্পর্কে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদে মতভেদ শান্তিপূর্ণ মীমাংসার চেষ্টায় তাঁর ভূমিকা ক্ষুণ্ণ করেছে. আনন বলেন যে, তিনি অথবা অন্য কেউ এখনও পর্যন্ত সিরিয়ার সরকার এবং বিরোধীপক্ষকে রাজনৈতিক পুনর্গঠনের প্রক্রিয়া শুরু করার প্রয়োজনীয়তা সম্বন্ধে বোঝাতে পারছে না. রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সম্পাদক বান কি মুন ইতিমধ্যে আরব রাষ্ট্র লীগের প্রধানের সাথে সিরিয়া সম্পর্কে আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলির নতুন বিশেষ প্রতিনিধি নিযুক্ত করা নিয়ে আলাপ-আলোচনা শুরু করেছেন.