সিরিয়ার সশস্ত্র বিরোধীপক্ষ যতদিন বাইরের সাহায্য পাবে, ততদিন মানবতাবাদী কার্যকলাপের কথা তোলা যায় না. এ সম্বন্ধে বলেছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ, মস্কোয় সার্বিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ভুক ইয়েরেমিচের সাথে সাক্ষাতের ফলাফল সংক্রান্ত সাংবাদিক সম্মেলনে. লাভরোভের কথায়, এ কথা সিরিয়ায় তথাকথিত “মানবতাবাদী করিডোর” এবং “নিরাপত্তার এলাকা” গঠন সম্বন্ধে আরব রাষ্ট্র লীগের উদ্যোগ সম্পর্কেও প্রযোজ্য. লাভরোভ বলেন যে, মস্কো সিরিয়ায় রাষ্ট্রসঙ্ঘের মিশনের মেয়াদের নতুন প্রলম্বনের আশা করে. তিনি বলেন, “আমরা চাই, যাতে পর্যবেক্ষকরা সে সমস্ত জায়গায় কাজ করার সুযোগ পায়, যেখানে সরকার এবং বিরোধীপক্ষের মাঝে মোকাবিলা হচ্ছে”. সেই সঙ্গে মস্কো মনে করে যে, মিশনের সদস্য সংখ্যা শুধু পুনর্স্থাপনই নয়, তা আরও বাড়ানো উচিত. শেষে তিনি বলেন, “আমরা দৃঢ় আশা প্রকাশ করি যে, সঙ্ঘর্যরত পক্ষগুলি আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষকদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করা সম্পর্কে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের আহ্বান মানবে”.