আরব রাষ্ট্র লীগের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা সিরিয়ায় সঙ্ঘর্ষ বন্ধ করার উদ্দেশ্যে এ দেশের রাষ্ট্রপতি বাশার আসদের কাছে পদত্যাগ করার দাবি জানিয়েছে.এ সম্বন্ধে সোমবার জানিয়েছে ফ্রান্স প্রেস সংবাদ এজেন্সি.সিরিয়া সম্পর্কেআরব রাষ্ট্র লীগেরমন্ত্রী-পর্যায়ের কমিটির গত রাতের বৈঠকের অংশগ্রহণকারীদের মতে, আসদের পদত্যাগ দেশে “রক্তক্ষয় থামাতে সাহায্য করবে”. সেই সঙ্গে বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে যে, “আরব রাষ্ট্র লীগ তাঁর এবং তাঁর পরিবারের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে সাহায্য করবে”. কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ হামাদ বিন জাসিম আল-তানি বৈঠকের ফলাফল সংক্রান্ত সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন যে, এমন “সাহসিকতাপূর্ণ সিদ্ধান্ত দেশকে বাঁচাতে সাহায্য করবে”, যেখানে সম্প্রতিকালে সরকারী বাহিনী এবং সশস্ত্র বিরোধী দলগুলির মাঝে সশস্ত্র সঙ্ঘর্ষ তীব্র হয়ে উঠেছে. একই সঙ্গে, কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কথায়, আরব মন্ত্রীরা “বিরোধীপক্ষ এবং সিরিয়ার স্বাধীন বাহিনীকে জাতীয় ঐক্যের সরকার গঠন করার আহ্বান জানিয়েছেন”. বৈঠকের অংশগ্রহণকারীরা মনে করেন যে, সিরিয়ায় রাষ্ট্রসঙ্ঘের মিশনের প্রতিনিধিদের দেশে “শাসন ক্ষমতার শান্তিপূর্ণ হস্তান্তরের জন্য প্রচেষ্টা সমাবেশ করা উচিত” এবং তাঁরা উল্লেখ করেছেন যে, সিরিয়ায় “নিরাপত্তার এলাকা” এবং “মানবতাবাদী করিডোর” গঠনের জন্য রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ অ্যাসেম্বলির জরুরী আয়োজন করা উপকারী হবে. বৈঠকের অংশগ্রহণকারীরা তাছাড়া সিরিয়ার শরণার্থীদের মানবতাবাদী সাহায্য হিসেবে ১০ কোটি ডলার দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন. আশা করা হচ্ছে যে, আল-তানি এবং আরব রাষ্ট্র লীগের প্রধান সচিব নাবিল আল-আরাবি মস্কো ও বেজিং সফর করবেন বৈঠকের ফলাফলের সাথে রাশিয়া ও চীনের নেতাদের পরিচয় করানো যায়.