সিরিয়ার রাজধানীর দক্ষিণ উপকণ্ঠে রক্তক্ষয়ী লড়াই চলছে. প্রত্যক্ষদর্শীরা জানাচ্ছে যে, শহরে অনুপ্রবেশ করা জঙ্গীদের সাথে সশস্ত্র সঙ্ঘর্ষ বুধবার সন্ধ্যায় বেড়ে ওঠার পরে দামাস্কাসের রাস্তায় জন-সমাগম যথেষ্ট কমে গেছে. বিপজ্জনক এলাকার দিকে যাওয়া বড় রাস্তাগুলি শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনী বন্ধ করে রেখেছে. প্রাথমিক তথ্য অনুযায়ী, নিহত হয়েছে ৪৬ জন শান্তিপূর্ণ নাগরিক, ৪৩ জন সৈনিক এবং ৮ জন জঙ্গী. সামরিক বিশেষ বাহিনী এবং বিরোধী তথাকথিত “সিরিয়ার স্বাধীন বাহিনীর” দলগুলির মাঝে সামরিক ক্রিয়াকলাপ পুনরারম্ভ হয়েছে মাদাই এবং দারাই শহরেও. সরকারী বাহিনী বিদ্রোহীদের উপর আঘাত হানছে দক্ষিণের দেরাআ প্রদেশে, ইদলিবের উত্তরাঞ্চলে, এবং পুবে দেইর-এজ-জোরে. বুধবার ঘটা সন্ত্রাসের ফলে রাষ্ট্রপতি বাশার আসদ নিজের ঘনিষ্ঠ মহলের প্রধান প্রধান ব্যক্তিকে হারিয়েছেন.নিহত হয়েছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী দাউদ রাজিখা এবং নিরাপত্তা বিষয়ে তাঁর সহকারী, সামরিক গোয়েন্দা বিভাগের প্রাক্তন অধিকর্তা আসেফ শৌকত – সিরিয়ার রাষ্ট্রপতির আপন বোনের স্বামী. বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদে সিরিয়া সঙ্ঘর্ষ মীমাংসা সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত নিয়ে ভোটদান হবে. সিরিয়ায় রাষ্ট্রসঙ্ঘের মিশনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে ২০শে জুলাই মাঝরাতে. রাশিয়া প্রস্তাব করছে তা তিন মাস বাড়াতে এবং বিদেশী সামরিক হস্তক্ষেপের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত মত প্রকাশ করছে. পাশ্চাত্যের খসড়া পর্যবেক্ষকদের উপস্থিতি ৪৫ দিনে সীমিত রাখে এবং সামরিক অনুপ্রবেশের অনুমতি দেয়.