সিরিয়া সঙ্কট মীমাংসার প্রক্রিয়ায় ইরানের কর্তৃপক্ষের নিজস্ব অবদান উপস্থিত করা উচিত্. এ সম্বন্ধে মঙ্গলবার সিরিয়া সম্পর্কে রাষ্ট্রসঙ্ঘ ও আরব রাষ্ট্র লীগের বিশেষ প্রতিনিধি কোফি আনন বলেছেন তেহেরানে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আলি আকবর সালেহি-র সাথে মিলিত সাংবাদিক সম্মেলনে. আনন মনে করেন যে, ইরান ইতিবাচক ভূমিকা পালন করতে পারে এবং সেজন্য সিরিয়া সঙ্কট মীমাংসায় তার অংশ থাকা উচিত্. প্রসঙ্গত, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোসঙ্ঘ এর বিরুদ্ধে মত প্রকাশ করে যে, সিরিয়ার রাষ্ট্রপতি বাশার আসদের বিশ্বস্ত সহযোগী ইরান সিরিয়া সঙ্কট মীমাংসার প্রক্রিয়ায় নিজের অবদান উপস্থিত করুক. বিশেষ করে, ৩০শে জুন জেনেভায় আন্তর্জাতিক সম্মেলনে ইরান-কে আমন্ত্রণ করা হয় নি, যদিও গোড়া থেকে আনন এ মত প্রকাশ করেন যে, এ দেশের প্রতিনিধিকে ডাকা উচিত্. আননের কথায়, বর্তমানে সিরিয়ায় প্রধান কর্তব্য হল হিংসা থামানো, “অ-নির্ভরযোগ্য হাতে থাকা অস্ত্র সংগ্রহ করা”, এবং সঙ্ঘর্ষের আরও সামরিকীকরণ থামানো. রাষ্ট্রসঙ্ঘের বিশেষ প্রতিনিধির মতে, তেহেরান “সিরিয়ার নেতৃবৃন্দের সাথে সুসম্পর্ক ব্যবহার করতে পারে সঙ্কট মীমাংসা করা এবং হিংসা বন্ধ করার জন্য”. এ সম্বন্ধে তেহেরানে আলাপ-আলোচনায় বলেছেন রাষ্ট্রসঙ্ঘের প্রতিনিধিদলে আননের ঘনিষ্ঠ এক উত্স.