0রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সম্পাদক বান কি মুন এ আশা প্রকাশ করেন যে, সিরিয়া সম্পর্কে আন্তর্জাতিক সাক্ষাত্, যা অনুষ্ঠিত হবে ৩০শে জুন, সঙ্কট মীমাংসার ক্ষেত্রে প্রচেষ্টায় “এক মোড়বদলের সময়” হবে. রাষ্ট্রসঙ্ঘের সদর দপ্তরে সাংবাদিকদের সামনে বক্তৃতা দিয়ে বান কি মুন আবার তাঁর বিশেষ প্রতিনিধি কোফি আননের দ্বারা প্রস্তাবিত সিরিয়ায় সঙ্ঘর্ষ মীমাংসার পরিকল্পনা সমর্থন করেছেন. ছয় ধারার এ পরিকল্পনায় বিশেষ করে অনুমিত সিরিয়ায় কর্তৃপক্ষ এবং সশস্ত্র বিরোধীপক্ষের মাঝে অগ্নি সংবরণ করা এবং রাজনৈতিক সংলাপ শুরু করা. কিন্তু এর কোনোটাই ঘটছে না. আশা করা হচ্ছে যে, জেনেভায় আনন সমস্ত পক্ষের অংশগ্রহণে সিরিয়ায় অন্তর্বর্তী সরকার গঠনের প্রস্তাব করবেন. প্রচার মাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী, সিরিয়ার রাষ্ট্রপতি বাশার আসদ তাতে থাকতে পারবেন না – সিরিয়ার বিরোধীপক্ষ এবং পশ্চিমী দেশগুলি এর জন্য চেষ্টা করছে. আনন আগে, বুধবার, সিরিয়া সংক্রান্ত ক্রিয়াকলাপের গ্রুপের সাক্ষাতের জন্য আমন্ত্রণ পাঠিয়েছেন রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য দেশ (রাশিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, গ্রেট-বৃটেন, চীন ও ফ্রান্স), তুরস্ক, ইরাক, কুয়েত ও কাতারের পররাষ্ট্র বিভাগের প্রধানদের, রাষ্ট্রসঙ্ঘ ও আরব রাষ্ট্র লীগের প্রধানদের, এবং ইউরোসঙ্ঘের বৈদেশিক নীতি ও নিরাপত্তা সংক্রান্ত হাই কমিশনারকে. এ আন্তর্জাতিক সাক্ষাতে ইরান উপস্থিত থাকবে না.