রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন সিরিয়ার পরিস্থিতি মীমাংসায় সিরিয়ার যথাসম্ভব বেশি প্রতিবেশী, সেই সঙ্গে ইরান-কে আকর্ষণ করার পক্ষে মত প্রকাশ করেছেন. এ সম্বন্ধে মঙ্গলবার তিনি সাংবাদিকদের বলেন জর্ডানের রাজা দ্বিতীয় আব্দাল্লা-র সাথে আলাপ-আলোচনার পরে. রাশিয়ার রাষ্ট্র-প্রধান উল্লেখ করেন, “প্রত্যেক প্রতিবেশী দেশের উপর কিছু-না-কিছু নির্ভর করে, এবং তা কোনো না কোনো ভাবে দেশের অভ্যন্তরে নির্দিষ্ট শক্তিকে প্রভাবিত করে”. তারপর যোগ করে বলেন যে, এ সব সুযোগ-সম্ভাবনা উপেক্ষা করা বিপরীত ফলদায়ক. আগে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ বলেন যে, ৩০শে জুন জেনেভায় অনুষ্ঠিতব্য সিরিয়া সংক্রান্ত সম্মেলনে ইরান-কে অবশ্যই আমন্ত্রণ করা উচিত. তিনি জোর দিয়ে বলেন, “অন্যথায় অংশগ্রহণকারীদের সারি অসম্পূর্ণ থাকবে”. একি সঙ্গে লাভরোভ উল্লেখ করেন যে, রাশিয়া এ সম্মেলনে অংশগ্রহণ করবে, এমনকি ইরানের প্রতিনিধিত্ব তাতে না থাকলেও.