ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচি নিয়ে আন্তর্জাতিক মধ্যস্থ “ছয় দেশের” সাথে তেহেরানের প্রতিনিধিদলের আলাপ-আলোচনা মস্কোয় মঙ্গলবার শুরু হয়েছে. এ সম্বন্ধে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন আলাপ-আলোচনায় রাশিয়ার প্রতিনিধিদলের প্রধান, রাশিয়ার উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই রিয়াবকোভ. তিনি আলাপ-আলোচনার গতিতে অতিরিক্ত কোনো মন্তব্য করতে অস্বীকার করেছেন, জানিয়েছে “ইতার-তাস” সংবাদ এজেন্সি. প্রথম দিনের আলোচনার শেষে তিনি উল্লেখ করেন যে, আলাপ-আলোচনার মস্কো রাউন্ড চলছে গঠনমূলক পরিবেশে, তবে পক্ষগুলির স্থিতিতে পার্থক্য থাকার কথা স্বীকার করেন. ইউরোসঙ্ঘের প্রতিনিধিরাও অনুরূপ মূল্যায়ন করেছেন. মধ্যস্থ “ছয় দেশ” ইরানের কাছে দাবি করছে ইউরেনিয়ামের পরিশোধন ২০ শতাংশে থামানোর এবং ফোর্দো-তে পারমাণবিক প্রকল্প বন্ধ করার. তেহেরান নিশ্চয়োক্তি করছে যে, ইউরেনিয়াম সামরিক উদ্দেশ্যে পরিশোধন করছে না, তা করছে পারমাণবিক বিদ্যুত্শক্তির জন্য. মধ্যস্থ “ছয় দেশের” মধ্যে আছে রাশিয়া, চীন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, গ্রেট-বৃটেন, ফ্রান্স ও ফেডারেল জার্মানি.