- অলিম্পিকে আমাদের দেশের জাতীয় দল কি রকম ফল করার আশা করেছে? আপনার পূর্বাভাস অনুযায়ী কত গুলি পদক জয় করা সম্ভব হবে আর তার মধ্যে কত গুলি হবে সোনার পদক?

জানাই আছে যে, খেলাধূলার ব্যাপারে আগে থেকে পূর্বাভাস দেওয়া ব্যাপারটা একেবারেই ভাল ব্যাপার নয়. কিন্তু তা স্বত্ত্বেও আমাদের খেলোয়াড়দের সম্ভাবনা নিয়ে এই বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশীপ গুলির ফলাফল দেখলেই বুঝতে পারা যাবে, যা কয়েক দিন আগেই শেষ হয়েছে. আমি মনে করি আমাদের খুবই বাস্তব সম্ভাবনা রয়েছে বেসরকারি তালিকার প্রথম তিনটি দেশের একটি হওয়ার. এর জন্য প্রয়োজন ২৩- ২৫টি সোনার পদক জয় করার. তুলনা করার জন্য আমরা বেজিং অলিম্পিকে ২৩টি স্বর্ণ পদক পেয়েছিলাম. আমরা দল গত ভাবে তৃতীয় স্থানে ছিলাম. এটা অবশ্য ঠিক যে, ভুলে গেলে চলবে না যে অলিম্পিক – এটা বিশেষ রকমের প্রতিযোগিতা, সেখানে সব কিছুই হতে পারে, আমি মনে করি, তাও আমাদের খেলোয়াড়দের প্রথম তিনের মধ্যে থাকার খুব ভাল সুযোগই রয়েছে.

- কত রকমের খেলায় আমাদের দল এবারে অংশ নেবে আর তার মধ্যে সেই রকমের কোনও ধরনের খেলা কি আছে, যাতে আমাদের দল প্রথম বার অংশ নিতে চলেছে?

আজকের দিনে অলিম্পিকের জন্য বাছাই পার হতে পেরেছেন অলিম্পিকের মোট ৩২ রকমের খেলার মধ্যে ৩০ রকমের খেলায় আমাদের ৪১০ জন খেলোয়াড়, যার মধ্যে রয়েছে ক্যানো আর কায়াক রেসিং, অ্যাথলেটিক্স, জিমন্যাসটিক্স, ওয়েট লিফটিং, ইত্যাদি সব বিষয়ে বাছাইয়ের সূচক অনুযায়ী জায়গা পেয়েছেন. গেমসে অংশ নেওয়ার জন্য প্রধান ভিত্তি হল রাশিয়ার চ্যাম্পিয়নশীপে অংশ নেওয়া, যা হচ্ছে এখন জুন- জুলাই মাসে. অর্থাত্ সেই গুলি এখনও শেষ হয় নি. রাশিয়ার বাস্কেটবল দল অলিম্পিকের বাছাইয়ের জন্য অংশ নিয়েছে, যা শেষ হবে শুধু ৮ই জুলাই. টেনিস দল ফ্রেঞ্চ ওপেন শেষ হওয়ার পরে এখন রেটিং বাছাই পর্ব শেষ করছে. সেখানেও আমাদের দল তৈরী করতে হবে. অর্থাত্ এখনও সব হয় নি, ঠিক করে বলতে হলে, সমস্ত জাতীয় দলের খেলোয়াড় নির্বাচন এখনও শেষ করা হয় নি, যদিও বেশীর ভাগই এখন ঠিক হয়ে গিয়েছে. নতুন ধরনের খেলা- যেটায় আমাদের দেশের খেলোয়াড়রা অংশ নিতে চলেছেন – এটা অলিম্পিকে মেয়েদের বক্সিং প্রতিযোগিতা. অলিম্পিকের ইতিহাসে প্রথমবার মেয়েদের বক্সিং প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হচ্ছে. কয়েকটি ধরনের খেলাতে পরিবর্তন হয়েছে. এটা নতুন ধরনের কোনও খেলা নয়, তবুও সেখানে পরিবর্তন আছে. যেমন, সেই বক্সিং প্রতিযোগিতাতেই পুরুষদের ক্যাটাগরির সংখ্যা কমিয়ে করা হয়েছে ১০, কিন্তু মেয়েদের তিনটি ক্যাটাগরি যোগ করা হয়েছে, তাই সব মিলিয়ে হয়েছে ১৩টি স্বর্ণ পদকের সম্ভাবনা. অন্যান্য নানা রকমের খেলাতেও নির্দিষ্ট রকমের পরিবর্তন করা হয়েছে. কিন্তু সব মিলিয়ে মোট খেলার সংখ্যা একই রয়েছে.

- কোন রকমের খেলায় আমাদের কোন খেলোয়াড় এবারে পদক পাওয়ার মতো সম্ভাবনা রাখে?

সবাইয়ের নাম বলতে হলে অনেক সময় লেগে যাবে, কারণ সব মিলিয়ে মোট পদক, যা আমাদের খেলোয়াড়রা গত বারের অলিম্পিকে পেয়েছিলেন, তা সত্তরের বেশী, ৭৫ টি. অবশ্যই আমাদের জাতীয় দলে সেই ধরনের বিতর্কের ঊর্ধ্বে থাকা খেলোয়াড়রা রয়েছেন, যাদের উপরে আমরা পদকের আশা করেই থাকি. এটা যেমন আমাদের সিনক্রনিক সুইমিংয়ে নাতালিয়া ইশ্যেনকো, স্ভেতলানা রমাশিনা, যারা এই ধরনের সাঁতারে বিগত সময়ে সমস্ত প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়েছে. ইভগেনিয়া কানায়েভা – আর্টিস্টিক জিমন্যাসটিক্সে, মারিয়া শারাপোভা – টেনিসে. এলেনা ইসিনবায়েভা – পোল ভল্টে. এই রকমই আরও অনেকে. অবশ্যই, আমাদের কুস্তি প্রতিযোগিতার খেলোয়াড়রা, যারা চিরকালই খুব ভাল রকমের ফল করেছেন, ফ্রি স্টাইল ও ক্ল্যাসিক স্টাইলে যারা কুস্তি লড়ে, তারা. অবশ্যই, আমাদের দলে অনেক নেতৃস্থানীয় খেলোয়াড় রয়েছে, কিন্তু আবারও অলিম্পিক গেমস – এটা এমন এক প্রতিযোগিতা, যাতে সব সময়েই শুধু খেলার নানা রকমের সম্ভাবনাই থেকে যাবে, এখানে আগে থেকে ফল বলে দেওয়া সম্ভব নয়.

- রাশিয়ার অলিম্পিক দলে কত জন রয়েছেন?

মনে করা হয়েছে যে, সব মিলিয়ে স্বীকৃত খেলোয়াড়ের, ট্রেনারদের ও বিশেষজ্ঞদের মিলিয়ে ৭০০ জন মতো, তাদের মধ্যে শুধু খেলোয়াড়দের সংখ্যা হবে ৪৩০- ৪৪০ জন, অর্থাত্ সবই নির্ভর করছে শেষের প্রতিযোগিতা গুলির উপরে, আর তাদের সঙ্গে যাবেন প্রায় ২৫০ জন লোক.

- কিসের উপরে এবারে লন্ডন অলিম্পিকের খেলার প্রস্তুতির জন্য বিশেষ করে জোর দেওয়া হয়েছে আর সাফল্যের জন্য কোনও বিশেষ গোপন চাবিকাঠি আছে কি?

সব থেকে বেশী জোর দেওয়া হয়েছে অবশ্যই আমাদের খেলোয়াড়দের প্রস্তুতির জন্য, যাতে তারা তৈরী হওয়ার জন্য সব চেয়ে ভাল পরিবেশ পায় ও একেবারে অলিম্পিক গেমসেও সেই রকমের ব্যবস্থা থাকে. আমরা এবারে আমাদের খেলোয়াড়দের জন্য চিকিত্সক ও জীব বিদ্যায় পারদর্শী লোকদের দিয়ে সঙ্গে থাকার ব্যাপারে বেশী করে জোর দিয়েছি. আমরা এর মধ্যেই জানি কবে আমাদের খেলোয়াড়রা লন্ডনে পৌঁছাচ্ছেন. এখানে প্রধান হল যে, আমাদের খেলোয়াড়দের প্রতিযোগিতার দিন গুলিতে তাদের সবচেয়ে ভাল ফর্ম শুরু হওয়ার আগে তৈরী হওয়া দরকার, আর তাদের স্বাস্থ্য যেন একেবারেই ভাল থাকে. কিন্তু খেলার ধরন এত নানা রকমের, খেলোয়াড়রা এত বিভিন্ন রকমের আর প্রত্যেকেরই নিজস্ব গোপন সাফল্যের চাবিকাঠি রয়েছে. এখানে কোন একটা সবার উপযুক্ত ফর্মুলা হতে পারে না, প্রত্যেক খেলোয়াড় – এঁরা একেক জন আলাদা ব্যক্তি, যাঁদের আলাদা রকমের বিশেষত্ব রয়েছে. তা স্বত্ত্বেও আমি মনে করি যে, আমাদের পক্ষে সম্ভব হয়েছে আমাদের দলের জন্য সবচেয়ে ভাল পরিস্থিতি অলিম্পিকের খেলার জন্য তৈরী করার.

- আপনি লন্ডন অলিম্পিকে আমাদের জন্য কাদের মনে করেন প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী বলে?

বেসরকারি দল গত ভাবে পদক বিজয়ীদের তালিকায় প্রথম তিনটে জায়গা দখলের জন্য অবশ্যই লড়াই করবে চিন ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র. আর আমাদের কাজ হবে, আমি যেমন এর আগেই বলেছি, প্রথম তিনের মধ্যে ঢোকার. আমি মনে করি যে, খুবই গুরুতর লড়াই করা হবে এই অলিম্পিকের আয়োজক দেশ গ্রেট ব্রিটেনের পক্ষ থেকে. ঐতিহ্য মেনেই আয়োজক দেশ ভাল ফল করে থাকে. মনে করি যে, সেই সব দেশ যেমন, জার্মানী, ফ্রান্স, এরাও নির্দিষ্ট রকমের প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারে.

- আপনার ভবিষ্যদ্বাণী কি – কারা দল গত ভাবে প্রথম পাঁচ দেশের মধ্যে থাকবে?

তা এই রাশিয়া, চিন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও গ্রেট ব্রিটেন ছাড়া, আমি মনে করি খুব সম্ভবতঃ জার্মানী, ফ্রান্স আর হতে পারে অস্ট্রেলিয়া প্রধান পদক জয়ী দল হতে চলেছে.

- রাশিয়ার জন্য অলিম্পিকে যোগদানের অর্থ কি?

অলিম্পিক – এটা সারা বিশ্বের জন্যই ঘটনা. অবশ্যই, তা খেলাধূলার জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ, কিন্তু দেখা যাচ্ছে, আসলে, তা খেলাধূলার কাঠামোর অনেক বাইরে ছড়িয়ে আছে. অলিম্পিক গেমস ঐতিহ্য অনুযায়ী, সেই প্রাচীন গ্রীসে উদ্ভব হওয়ার সময় থেকেই, বাস্তবে, সারা বিশ্বকে এক করতে চেয়েছে. আর প্রাচীন সময়ে অলিম্পিকের সময়ে সমস্ত যুদ্ধ বন্ধ করা হত. যারা অলিম্পিকের ধারণা তৈরী করেছিলেন, তারা এর মূল্যবোধের মধ্যেই সেই সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ অংশ যোগ করেছিলেন, যা ছিল খেলাধূলা, সংস্কৃতি ও শিক্ষার অংশ. আর অবশ্যই অলিম্পিকে আমাদের দেশের খেলোয়াড়দের অংশ নেওয়া সারা দেশের লোকই লক্ষ্য করেন, তাঁরা সবাই এঁদের জন্য প্রার্থনা করেন, উদ্বিগ্ন হন, এমনকি সেই সময়ে এমন লোকও থাকেন, যাঁরা শুধু অলিম্পিকের সময় ছাড়া অন্য সময়ে খেলাধূলা নিয়ে বিশেষ চিন্তা করেন না. তাই আমাদের জন্য অলিম্পিকে অংশ নেওয়া- এটা দেশের মর্যাদা বাড়ানো, আমাদের দেশের লোকদের গর্বিত করা. তাছাড়াও অবশ্যই শরীর চর্চা ও খেলাধূলার প্রবণতা আমাদের দেশে আরও বৃদ্ধি করার চেষ্টা, সেই গুলিকে জনপ্রিয় করা, যা সুস্থ জীবনের প্রচারের জন্য খুবই জরুরী.

- এই গত কালই জানা গিয়েছে যে, মারিয়া শারাপোভা লন্ডন অলিম্পিকে দেশের জাতীয় পতাকা বহন করে নিয়ে মার্চ পাস্টে যাবেন. কেন এই নির্বাচন মারিয়াকেই করা হয়েছে আর এত বড় মর্যাদার জায়গা তাঁর ভাগ্যেই হয়েছে কেন?

এখনও শেষ সিদ্ধান্ত নেওয়া বাকী রয়েছে (এই সাক্ষাত্কারের পরে সিদ্ধান্ত বহাল হয়ে গিয়েছে – বিঃ সম্পাদকীয় বিভাগ). কিন্তু আমি মনে করি যে, মারিয়া আমাদের দেশের জাতীয় পতাকা বহন করে নিয়ে যাওয়ার জন্য একেবারেই খুবই যোগ্য মেয়ে. পতাকা বয়ে নেওয়ার জন্য সাধারণতঃ বাছাই করে নেওয়া হয়ে থাকে দেশের সবচেয়ে শক্তিশালী, জনপ্রিয় খেলোয়াড়কে. আমাদের টেনিস খেলোয়াড়রা বিশ্বে সবচেয়ে জনপ্রিয় তারকাদের মধ্যেই রয়েছেন, মারিয়া শারাপোভা – আজ বিশ্বের মহিলা খেলোয়াড়দের মধ্যে এক নম্বর, এই কয়েক দিন আগেই তিনি ফ্রেঞ্চ ওপেন জিতেছেন. তাই আমি মনে করি যে, এটা খুবই যোগ্য ব্যক্তি নির্বাচন হবে.