সিরিয়া যে সম্পূর্ণ রকমের গৃহযুদ্ধের সামনে দাঁড়িয়ে আছে, এই ঘোষণা মস্কো শহরে সাংবাদিক সম্মেলনে করেছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রধান সের্গেই লাভরভ. তাঁর কথামতো, প্রতিদিনের সঙ্গেই পরিস্থিতি খারাপ হচ্ছে ও তা নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাচ্ছে. নিরীহ জনতা ও বিদেশীদের উপরে আক্রমণের ঘটনা বেড়েই চলেছে, তার মধ্যে রুশ নাগরিকরাও রয়েছেন. শনিবারে দামাস্কাস শহরে রাশিয়ার বিশেষজ্ঞদের নিয়ে যাওয়ার সময়ে একটি বাসের উপরে গুলি চালনা করা হয়েছে. এর আগে রাজধানীতে একটি বাড়ীর উপরে গ্রেনেড লঞ্চার থেকে অগ্নি বর্ষণ করা হয়েছিল, যেখানে রুশ লোকেরা থাকেন. লাভরভ বিশেষ করে উল্লেখ করেছেন যে, সিরিয়াতে ঘটা ঘটনার জন্য দায়িত্ব শুধু দেশের সরকারই নয়, বরং তারাও নেবে, যারা সশস্ত্র জঙ্গীদের জন্য অর্থ দিচ্ছে, যোদ্ধা বানানোর জন্য লোক নিয়ে আসছে, তাদের সীমান্ত পার করে পৌঁছে দিচ্ছে ও নানা ধরনের চরমপন্থীদের সঙ্গে নানা রকমের খেলা খেলছে নিজেদের রাজনৈতিক উদ্দেশ্য সফল করার জন্য. মস্কো মনে করে যে, সিরিয়ার সরকার ও গঠন মূলক উদ্দেশ্য নেওয়া বিরোধীদের মধ্যে আলোচনার সম্ভাবনা এখনও শেষ হয়ে যায় নি. তাই এই দেশের উপরে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের সিদ্ধান্ত নিতে নিজেদের সহমত দেবে না. “দামাস্কাসের বিরুদ্ধে শক্তি প্রয়োগ করার ফল সমগ্র নিকট প্রাচ্যের জন্যই খুবই করুণ পরিণতি নিয়ে আসতে পারে”, বলে লাভরভ তাঁর বক্তব্য শেষ করেছেন.