জাতিসংঘের বিশেষ প্রতিনিধি কোফি আন্নন প্রস্তাবিত যোগাযোগ দল গঠণ করার তুলনায় মস্কো সিরিয়ার প্রসঙ্গে আন্তর্জাতিক সম্মেলনের আয়োজনকেই অগ্রাধিকার দিচ্ছে. ‘ইন্টার-ফ্যাক্স’ সংবাদসংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে রাশিয়ার উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী গেন্নাদি গাতিলভ এই মন্তব্য করেছেন. তার ভাষায়, প্রস্তাবিত সম্মেলনে যোগদান করা উচিত জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের গুরুত্বপূর্ণ রাষ্ট্রগুলির এবং সিরিয়ার সাথে সীমান্তবর্তী দেশগুলির. ইরানের উপস্থিতি সেখানে গঠণমুলক ভূমিকা নিতে পারে. কয়েকদিন আগে সিরিয়ার প্রসঙ্গে আন্তর্জাতিক সম্মেলনের আয়োজন করার প্রস্তাব দিয়েছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ. আজ মস্কোয় আয়োজিত এক ব্রিফিংয়ে তিনি সাংবাদিকদের তার উদ্যোগের কারণ ব্যাখ্যা করছেন.  তিনি পরিষ্কার করে বুঝিয়ে দিয়েছেন, যে রাশিয়া নিরাপত্তা পরিষদের মারফতে সমর চিত্রনাট্য কিছুতেই রূপায়িত হতে দেবে না. তিনি উল্লেখ করেছেন, যে “বিদেশী সামরিক হস্তক্ষেপের অধিকার দেওয়া হবে না. আমি আপনাদের এই ব্যাপারে গ্যারান্টি দিচ্ছি”.