সিরিয়ার কর্তৃপক্ষ হুলা গ্রামে হত্যাকাণ্ডের পরিস্থিতি তদন্ত করে এই ব্যাপক হত্যাকাণ্ডের জন্য দায়িত্ব আরোপ করেছেন সশস্ত্র দলগুলির উপর. কমিশনের মতে, এইভাবে তারা সিরিয়ার সঙ্কটে আন্তর্জাতিক সামরিক হস্তক্ষেপ প্ররোচিত করার চেষ্টা করেছিল. তদন্তের নেতৃত্বকারী জেনারেল জামাল সুলেইমান হুলার হত্যাকাণ্ডে সরকারী বাহিনীর জড়িত থাকা চূড়ান্তভাবে খন্ডন করেছেন. তাঁর কথায়, জঙ্গীরা গ্রামবাসীদের হত্যা করেছে দেশের কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে বিদ্রোহে অংশগ্রহণ করতে অস্বীকার করার জন্য. জেনারেল যোগ করে বলেন, এ বিপর্যয়ের সময়ে সিরিয়ার সরকারী বাহিনী হুলা অঞ্চলে ছিল না. কমিশন এ সিদ্ধান্তে আসে যে, বিপর্যয়ের জন্য দায়িত্ব আরোপিত হচ্ছে ৬০০ থেকে ৮০০ সশস্ত্র জঙ্গীর উপর, যারা শান্তিপূর্ণ অধিবাসীদের আক্রমণ করেছিল এবং তাছাড়া কিছু জায়গায় সৈন্যবাহিনীর অবস্থান-স্থলে হানা দিয়েছিল. জেনারেল এ বক্তব্যও খন্ডন করেন যে, গ্রামবাসীদের একাংশ নিহত হয়েছে আর্টিলারী গোলার আঘাতে. তিনি ব্যাখ্যা করে বলেন যে, নিহতদের শবদেহ পরীক্ষার ফলে স্পষ্ট হয়ে ওঠে যে, তাদের মৃত্যুর কারণ আর্টিলারীর গোলা নয়.জানানো হয়েছে যে, হুলায় এক সপ্তাহ আগে ১০৮ জনকে হত্যা করা হয়, যাদের মধ্যে ৪৯ জন শিশু এবং ৩৪ জন নারী. তাদের অনেককেই খুব কাছ থেকে গুলি করে অথবা ছোরা মেরে হত্যা করা হয়েছে.