মস্কো আগের মতোই সিরিয়ার প্রতি বাধা-নিষেধ প্রবর্তনের বিরুদ্ধে মত প্রকাশ করছে. এ সম্বন্ধে বুধবার নিউ-ইয়র্কে বলেছেন রাষ্ট্রসঙ্ঘে রাশিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধি ভিতালি চুরকিন, নিরাপত্তা পরিষদে রুদ্ধদ্বার পরামর্শ-বৈঠকের পরে. কূটনীতিজ্ঞের কথায়, রাশিয়া সিরিয়ায় পর্যবেক্ষক মিশন প্রসারের ধারণা বিবেচনা করতে প্রস্তুত. চুরকিন উল্লেখ করেন যে, অগ্নি সংবরণ সম্বন্ধে কোফি আননের পরিকল্পনা আপাতত কোনো পক্ষই পালন করছে না. কূটনীতিজ্ঞের কথায়, কর্তৃপক্ষ এবং বিরোধীপক্ষ, উভয়ের বিরুদ্ধেই গুরুতর অভিযোগ আছে. তিনি এ বিষয়ের প্রতি মনোযোগ আকর্ষণ করেন যে, “এখনও পর্যন্ত হুলা-র ঘটনাবলি সম্পর্কে সম্পূর্ণ স্পষ্টতা নেই, শুধু এ খবর বাদ দিয়ে যে, সেখানে ১০০ জনের উপর নিহত হয়েছে”. প্রসঙ্গত, জানা গেছে যে, সিরিয়ার বিদ্রোহীরা রাষ্ট্রপতি বাশার আসদের কাছে চরম দাবি পেশ করেছে. তারা দেশে পরিস্থিতি মীমাংসা সংক্রান্ত পরিকল্পনা পুরণের জন্য ৪৮ ঘন্টা সময় দিয়েছে. চরম দাবির মেয়াদ শেষ হবে শুক্রবার মধ্য-দিনে, তার পরে বিদ্রোহীরা অগ্নি সংবরণের ব্যবস্থা বজায় রাখা সংক্রান্ত সমস্ত বাধ্যবাধকতা থেকে নিজেদের মুক্ত বলে বিবেচনা করবে.