প্রধানমন্ত্রী দিমিত্রি মেদভেদেভ সক্রিয়ভাবে “ঐক্যবদ্ধ রাশিয়া” দলের কাজ কর্মে যুক্ত হয়েছেন, কয়েক দিন আগেই তিনি এই দলের সদস্য পদ গ্রহণ করেছেন. দেশের প্রধান রাজনৈতিক সংস্থার ত্রয়োদশ সম্মেলনের অব্যবহিত পূর্বে দলের ভিতরেই গণতন্ত্র নিয়ে বিতর্ক হয়েছে ও আলোচনা হয়েছে রাজনৈতিক মঞ্চের বিকাশ নিয়েও. এই বিতর্কের প্রধান ফলাফল- “ঐক্যবদ্ধ রাশিয়ার” সক্রিয় কর্মীদের পক্ষ থেকে স্বীকারোক্তি যে দলের সাংগঠনিক বিকাশের ব্যবস্থার নবীকরণের প্রয়োজন রয়েছে ও তা নাগরিকদের আশার সঙ্গে সম্মতি রেখেই করার কথা.

 এই বৈঠকের বিষয় অনুযায়ী বিভাগের মূল আলোচ্য, আশানুরূপ ভাবেই, শুধু দলের কাজ কর্মের নীতির আধুনিকীকরণই নয়, বরং তা সমাজের পক্ষ থেকে কি রকম ভাবে দেখা হয়, তারও বিচার করা হয়েছে. জানাই আছে যে, বিগত সময়ে তা প্রায়ই অতিরিক্ত রকমের ব্যুরোক্র্যাসীর কারণে সমালোচনার মুখে পড়েছে. খুব সম্ভবতঃ, “ঐক্যবদ্ধ রাশিয়ার” নেতৃত্ব এই প্রতিক্রিয়া থেকে সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন ও তৈরী হয়েছেন গুরুত্বপূর্ণ রকমের আধুনিকীকরণের জন্য. দিমিত্রি মেদভেদেভ ঘোষণা করেছেন যে, “ঐক্যবদ্ধ রাশিয়া” জনগনের কাছে “নিজেদের দল” বলে বোধ হওয়াতে বাধ্য, আর তার নেতৃত্ব দেওয়া উচিত্ সেই সব লোকদের, যাদের দেশের জনগন বিশ্বাস করেন ও সম্মান করেন.

 প্রধানমন্ত্রী প্রস্তাব করেছেন “ঐক্যবদ্ধ রাশিয়ার” সমস্ত স্তরের কার্য নির্বাহী সম্পাদক নির্বাচন করা হবে গোপনে সরাসরি ভোটের মাধ্যমে ও বিকল্প প্রার্থীদের মধ্যে. তাছাড়া, দিমিত্রি মেদভেদেভ মনে করেন যে, দলের নেতাদের সকলের জন্যেই সমস্ত স্তরে, তা যেমন রাষ্ট্রীয়, তেমনই আঞ্চলিক ভাবে একক পাঁচ বছরের দায়ভার গ্রহণের সময় স্থির করতে হবে. বর্তমানে এই ধরনের দায়িত্ব ভার গ্রহণের সময় সীমা রয়েছে দুই থেকে চার বছর পর্যন্ত.

 সংগঠনের স্বচ্ছতা সম্বন্ধে যা বলা যেতে পারে, তা হল প্রধানমন্ত্রীর মতে, তার নেতৃত্বের উচিত হবে প্রত্যেক বছরে সহকর্মীদের সামনে কৃত কর্মসূচীর পরিপূরণ নিয়ে মূল্যায়ন প্রকাশ করা. আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন, যেটি নিয়ে মেদভেদেভ আলাদা করে বলেছেন, তা দলের কেন্দ্রীয় সংগঠনের কর্মকর্তাদের ও আঞ্চলিক সংগঠন গুলির কর্মকর্তাদের মধ্যে একটা নিয়মিত স্থান পরিবর্তনের ব্যবস্থা নিয়ে. প্রধানমন্ত্রী প্রস্তাব করেছেন প্রতি বছরে আঞ্চলিক ও স্থানীয় রাজনৈতিক সভার দশমাংশের নবীকরণ করার.

 ২৬শে মে দলের সম্মেলনে মুখ্য ঘটনা ঘটতে চলেছে. মনে করিয়ে দেবো যে, এপ্রিল মাসের শেষে “ঐক্যবদ্ধ রাশিয়া” দলের পূর্ববর্তী নেতা ও বর্তমানের রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন ঘোষণা করেছিলেন যে, তিনি দল ছেড়ে দিচ্ছেন, আর প্রস্তাব করেছিলেন দিমিত্রি মেদভেদেভকে পরবর্তী নেতা হিসাবে. আশা করা হয়েছে যে, সম্মেলনে “ঐক্যবদ্ধ রাশিয়ার” সদস্যরা তাঁকে এই পদে নির্বাচন করবেন. তাছাড়া, সম্মেলনের প্রতিনিধিরা এই প্রথমবার সাধারন সভা ও উচ্চ সভার সম্পাদকদের নির্বাচন করবেন, আর তারই সঙ্গে দলের সনদ পত্রে পরিবর্তন বিষয়ে ভোট দেবেন.