মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ভূভাগে কনফুশিয়স ইনস্টিটিউটের কাজকর্ম সম্বন্ধে মার্কিনী পররাষ্ট্র বিভাগের নির্দেশ রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত এবং তা দু দেশের মাঝে সাংস্কৃতিক বিনিময়ের জন্য অনুকূল নয়. এ সম্বন্ধে শুক্রবার লিখেছে বেজিংয়ের “গ্লোবাল টাইমস” পত্রিকা. পত্রিকাটি মনে করিয়ে দিচ্ছে যে, পররাষ্ট্র বিভাগ ১৭ই মে মার্কিনী বিশ্ববিদ্যালয়গুলির পরিচালকমন্ডলীর কাছে একটি দলিল পাঠিয়েছে “ডিরেক্টিভ ২০১২-০৬. সফর বিনিময়ের কর্মসূচি – ইনস্টিটিউট কনফুশিয়স” নামে. এ নির্দেশনামায় বলা হয়েছে যে, অ্যাক্রেডিটেশন ছাড়া এবং ভিসার নিয়ম লঙ্ঘন করে মার্কিনী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিতে কর্মরত চীনা অধ্যাপকদের এ শিক্ষা বর্ষের শেষ নাগাদ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ছেড়ে যেতে হবে, অর্থাত্ জুন মাসের মধ্যে. পররাষ্ট্র বিভাগের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, কনফুশিয়স ইনস্টিটিউটকে বিশেষ অ্যাক্রেডিটেশন নিতে হবে বিদেশী অধ্যাপক, বিজ্ঞানী ও গবেষকদের গ্রহণ চালিয়ে যাওয়ার জন্য. এর প্রাক্কালে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি হুন লেই বলেন যে, যথাযথ চীনা বিভাগ এ প্রশ্ন নিয়ে কাজ করছে. বেজিং আশা করছে যে, এ প্রশ্নটি উপযুক্তভাবে মীমাংসিত হবে, জোর দিয়ে বলেন তিনি.