ইরানের রাষ্ট্রপতি মাহমুদ আহমাদিনেজাদ চীন সফর করবেন এবং ২০১২ সালের জুন মাসে শাংহাই সহযোগিতা সংস্থার শীর্ষ সাক্ষাতে অংশগ্রহণ করবেন, জানিয়েছেন চীনের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী চেন গোপিন. বুধবার এক ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন যে, এ সফরের সময় তিনি আলাপ-আলোচনা করবেন চীনের সভাপতি হু জিনতাওয়ের সাথে এবং ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচি সংক্রান্ত প্রশ্নাবলি আলোচনা করবেন. কূটনীতিজ্ঞ জোর দিয়ে বলেন যে, হু জিনতাওয়ের সাথে সাক্ষাতে ইরানের পারমাণবিক প্রশ্ন অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ আলোচ্য বিষয় হবে. তিনি উল্লেখ করেন যে, চীন ইরান সম্পর্কে রাষ্ট্রসঙ্ঘের যথাযথ সব সিদ্ধান্ত অক্ষরে অক্ষরে পালন করছে. তবে বেজিং দুই তরফের নিষেধাজ্ঞা প্রবর্তনের বিরুদ্ধে মত প্রকাশ করছে. যার উদ্দেশ্য হল অন্যান্য রাষ্ট্রের উপর চাপ দেওয়া, অথবা ইরানের সাথে অন্যান্য দেশের স্বাভাবিক বাণিজ্যের ক্ষতি করা. চীনের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এ বিবৃতি দেওয়া হয়েছে বুধবার বাগদাদে ইরানের সাথে তার পারমাণবিক কর্মসূচি নিয়ে আন্তর্জাতিক মধ্যস্থ “ছয় দেশের” আলাপ-আলোচনার পরবর্তী রাউন্ড শুরু হওয়ার প্রাক্কালে.