পেরুর উত্তর সমুদ্র উপকূলে গত এপ্রিল মাসে প্রায় এক হাজার ডলফিনের মৃত্যু হয়েছে স্বাভাবিক কারণেই. এই মন্তব্য করেছেন সে দেশের শিল্পমন্ত্রী গ্লাদিস ত্রিভেনিও. তার কথায়, যে সব বিজ্ঞানীরা প্রয়োজনীয় গবেষণা করেছেন, তারা এই মতে পৌঁছেছেন. তাদের প্রস্তুত করা রিপোর্ট থেকে এই সিদ্ধান্তে পৌঁছানো যায়, যে ডলফিনরা স্বাভাবিক বাছাইয়ের প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে. এইভাবে মন্ত্রণালয় ইতিপূর্বে পরিবেশ রক্ষাকর্মীদের গবেষণার ফলাফল বাতিল করলো. পরিবেশ রক্ষাকর্মীদের বক্তব্য ছিল, যে ডলফিনগুলো মারা গেছে খনিজ তেল নিস্কাষনের জন্য বিস্ফোরণের দরুন.