ন্যাটো জোটের দেশগুলির নেতারা চিকাগো শীর্ষ সাক্ষাতে আফগানিস্তানে সামরিক অভিযান বন্ধ করা এবং এ দেশ থেকে সৈন্যবাহিনী অপসারণের সময় নির্ঘন্ট সর্বসম্মত করেছেন, জানানো হয়েছে জোটে. বিশেষ করে, ন্যাটো দেশগুলি ২০১৩ সালের মাঝামাঝি নাগাদ আফগানিস্তানের ভূভাগে সামরিক অভিযানে অংশগ্রহণ সম্পূর্ণভাবে বন্ধ করতে সম্মত. তাছাড়া, ২০১৪ সাল শেষ হওয়ার আগে আফগানিস্তান থেকে জোটের বাহিনী অপসারণের কর্তব্যও বলবত্ থাকবে. ২০১৫ সাল থেকে আফগানিস্তানে থাকবে ন্যাটো জোটের শুধু সেই সামরিক কর্মীরা, যাদের উপর আফগান বাহিনীর প্রস্তুতির দায়িত্ব থাকবে. ন্যাটো জোটের শীর্ষ সাক্ষাতের ফলাফলের ভিত্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে যে, পাকিস্তানের ভূভাগ হয়ে আফগানিস্তানে নিজেদের বাহিনীর জন্য মালপত্র পাঠানোর সম্ভাবনা সম্বন্ধে আশাবাদ প্রকাশ করা হচ্ছে. এ যাত্রাপথে মালপত্র পাঠানো বন্ধ হয়েছিল ইস্লামাবাদের উদ্যোগে, ২০১১ সালের শেষ দিকের ঘটনার পরে. তখন মার্কিনী বিমান বাহিনী ভুল করে আঘাত হেনেছিল পাকিস্তানী সৈনিকদের উপর, যার ফলে ২৪ জন সৈনিক নিহত হয়েছিল.