বিশ্ব দাবা চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইন্যাল ম্যাচ ভারতের বিশ্বনাথন আনন্দ ও ইস্রায়েলের বরিস গেলফান্দের মধ্যে অর্ধেক পথ অতিক্রম করলো – ক্লাসিকাল সময়সীমা অনুযায়ী ১২ রাউন্ডের মধ্যে ৬ রাউন্ড শেষ হয়েছে. এখনো ড্র চলছে. ইউরোপীয় মহিলা দাবা চ্যাম্পিয়ন ভ্যালেন্তিনা গুনিনার মতে, অতঃপর চূড়ান্ত ফলাফলের পূর্বাভাস দেওয়া খুব শক্ত.

      দাবা শুধু ক্রীড়া ও শিল্পই নয়, দুই প্রতিদ্বন্দীর ব্যক্তিত্ব ও মনস্তত্ত্বের লড়াই. গুনিনা বলছেন, যে এক্ষেত্রে আনন্দের পক্ষে গেলফান্দের তুলনায় বেশি শক্ত হবে, কারণ তাকে দাবার মুকুট ধরে রাখার ঝুঁকি নিতে হচ্ছে.—

0     আমার মনে হচ্ছে, যে আনন্দ একটু নার্ভাস. যদিও বাইরে থেকে তাকে দেখলে শান্তই মনে হয়, কিন্তু আভাস পাওয়া যাচ্ছে. আর গেলফান্দ কড়া চোখে তার প্রতিদ্বন্দীর দিকে এমনভাবে তাকাচ্ছে, যাতে মনে হয় সেই ফেভারিট. আমার মনে হয় না, যে প্রতিদ্বন্দীকে ঘাবড়ে দেওয়ার জন্য সে স্পেশ্যালি এটা করছে. যাই হোক না কেন, ২ জন মহান দাবাড়ু ওরকম প্রক্রিয়া অবলম্বন করবে না. কিন্তু দেখা যাচ্ছে, যে গেলফান্দ আনন্দের দিকে এমনভাবে তাকাচ্ছে, যেমন অজগর সাপ গিনিপিগের দিকে তাকায়.