সিরিয়ার বিরোধী পক্ষের জাতীয় সভার নেতা বুরখান গালিউন, দুই দিন আগে পুনরায় সভাপতি পদে নির্বাচিত হওয়ার পরেই ঘোষণা করেছেন যে, তিনি সংগঠনের জন্য যোগ্য অন্য কোনও নেতার হাতেই ক্ষমতা হস্তান্তর করতে প্রস্তুত, যদি কাউকে খুঁজে পাওয়া যায়. বৃহস্পতিবারে এই খবর দিয়েছে রয়টার সংবাদ সংস্থা. স্থানীয় কোঅর্ডিনেশন কমিটি সিরিয়াতে এর আগে হুমকি দিয়েছিল যে, তারা বিরোধী সিরিয়া জাতীয় সভা থেকে বেরিয়ে যাবে, বুরখান গালিউন আবার সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন বলে. গত দুই মাস ধরেই এই স্থানীয় কমিটি জাতীয় সভার বৈঠকে যোগ দিচ্ছে না. কমিটির ঘোষণাতে উল্লেখ করা হয়েছে যে, জাতীয় সভা তাদের কাজের মধ্যে দিয়ে সিরিয়ার বিরোধী পক্ষের মধ্যে বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি করেছে. তার ওপরে, কমিটি গুলিতে মনে করা হয়েছে যে, গালিউন তাঁর সামনে উপস্থিত রাজনৈতিক ও আয়োজনের কাজ করতে পারেন নি. প্রথম দিকে সিরিয়ার বিদ্রোহ শুরু হওয়ার পরে সিরিয়ার জাতীয় সভা বৃহত্ আকারে আন্তর্জাতিক সহায়তা পেয়েছে, কিন্তু তাদের নিজেদের মধ্যেই বিরোধ থাকায় দেশের বিরোধী আন্দোলনের নেতৃত্ব তারা দিতে পারে নি, বলে কাগজে উল্লেখ করা হয়েছে. সিরিয়ার জাতীয় সভার দলে প্রথম গুরুতর বিভাজন দেখা গিয়েছিল, যখন ফেব্রুয়ারী মাসে ২০ জনেরও বেশী বিখ্যাত নেতা দল ছেড়ে বেরিয়ে গিয়ে “সিরিয়ার দেশপ্রেমীদের দল” তৈরী করেছিলেন.