দক্ষিণ কোরিয়া ও চিনের নেতারা সমঝোতায় এসেছেন যে ঘনিষ্ঠ ভাবে সহযোগিতা করবেন উত্তর কোরিয়াতে নতুন করে পারমানবিক পরীক্ষা বন্ধ করার জন্য. এই সম্বন্ধে মঙ্গলবারে দক্ষিণ কোরিয়ার সংবাদ মাধ্যমে জানানো হয়েছে, দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রপতি লি মেন বাকের চিন সফরের ফল নিয়ে খবর দিয়ে, যে সফরে তিনি গণ প্রজাতন্ত্রী চিনের চেয়ারম্যান হু জিনটাও এর সঙ্গে দেখা করেছেন. এই প্রসঙ্গে দক্ষিণ কোরিয়ার বিশ্লেষকরা উল্লেখ করেছেন বেজিং ও সিওলের এই প্রশ্নের সমাধানে ভিন্ন ধরনের পদ্ধতির কথা. দক্ষিণ কোরিয়া বিশেষ করে উল্লেখ করেছে উত্তর কোরিয়ার তরফ থেকে “নতুন ধরনের প্ররোচনার বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার” জন্য. চিন জোর দিয়েছে “উত্তেজনা কম করার জন্য ব্যবস্থা নেওয়ার” সপক্ষে. এই বৈঠকের আরও একটি ফল হয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া ও চিনের মধ্যে উত্তর কোরিয়া থেকে চিনের এলাকায় পালিয়ে আসা লোকদের সমস্যা সমাধানের বিষয়ে সহযোগিতা বিষয়ে. পিয়ং ইয়ং ও বেজিংয়ের মধ্যে আগে করা সমঝোতা অনুযায়ী চিন এই ধরনের লোকদের উদ্বাস্তু মনে না করে, অর্থনৈতিক কারণে অভিবাসিত লোক বলেই মনে করে ও তাদের আবার উত্তর কোরিয়াতেই ফেরত পাঠায়. এবারে বেজিং ও সিওল ঠিক করেছে যে, এই সমস্যাতে “আরও নমনীয় ভাবে” সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে.