ইস্লামপন্থী “আল-নুস্রা ফ্রন্ট” রাডিক্যাল গ্রুপ ঘোষণা করেছে যে, সিরিয়ার রাজধানী দামাস্কাসে সন্ত্রাসের জন্য দায়িত্ব নিজের উপর গ্রহণ করে নি, যে সন্ত্রাসের ফলে ৫০ জনের উপর নিহত হয়েছে. মঙ্গলবার “ফ্রান্স প্রেস” সংবাদ এজেন্সি জানিয়েছে যে, একসারি ইস্লামিক সাইটে অন্য ভিডিও রেকর্ড দেখা দিয়েছে, যাতে “আল-নুস্রা ফ্রন্টের” তরফ থেকে নিশ্চয়োক্তি করা হয়েছে যে, আগে প্রচারিত ভিডিও-রোল এবং দামাস্কাসে সন্ত্রাসে জড়িত থাকা সম্পর্কে গ্রুপের বিবৃতি জাল করে করা. সেই সঙ্গে গ্রুপের পরিচালকমণ্ডলী নিশ্চয়োক্তি করছেন যে, সিরিয়ার রাজধানীতে সন্ত্রাসের আয়োজনে যোদ্ধাদের জড়িত থাকার ঘটনা সম্বন্ধে “ফ্রন্টের সামরিক শাখার কাছ থেকে সমর্থন বা অস্বীকার সংক্রান্ত কোনো খবর পায় নি”, আগে পশ্চিমী প্রচার মাধ্যম জানিয়েছিল যে, ইন্টারনেটে দেখা দিয়েছে ভিডিও-রোল, যাতে সন্ত্রাসের জন্য দায়িত্ব এ গ্রুপ নিয়েছে বলা হয়েছে. যোদ্ধাদের বিবৃতির বয়ান থেকে বোঝা যায় যে, দামাস্কাসে বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে “রাষ্ট্রপতি বাশার আসদের বাহিনীর দ্বারা বসতি কেন্দ্র আক্রমণের উত্তর” হিসেবে. গত শুক্রবার, ১০ই মে, দামাস্কাসে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের দিকে যাওয়ার রাস্তায় দুটি শক্তিশালী বিস্ফোরণ ঘটে. এ সন্ত্রাসের ফলে অন্ততপক্ষে ৫৫ জন নিহত হয়েছে, ৩৭০ জনের উপর আহত হয়েছে.