শুক্রবারে ব্রাসেলস শহরে ইউরোপীয় সঙ্ঘের কূটনৈতিক বিভাগের প্রধান ক্যাথরিন অ্যাস্টন ও ইরাকের পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রধান হোশিয়ার জিবারি এই চুক্তি স্বাক্ষর করেছেন. অ্যাস্টন উভয় পক্ষের জন্যই এই চুক্তির উপকারিতা ও দীর্ঘস্থায়ী সম্ভাবনার কথা উল্লেখ করেছেন. তাঁর মতে এই চুক্তি বহু সমস্যা নিয়ে উভয় পক্ষের সহযোগিতার সূত্রপাত করেছে, যা সামনে সমাধানের জন্য পড়ে রয়েছে. ইউরোপের বিদেশ মন্ত্রকে উল্লেখ করা হয়েছে যে, এটা ইউরোপীয় সঙ্ঘ ও ইরাকের মধ্যে প্রথম কাঠামো তৈরীর চুক্তি, যা বিস্তারিত ক্ষেত্রে সহযোগিতার সম্ভাবনা তৈরী করে দিচ্ছে, সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই থেকে শুরু করে, মানবাধিকার রক্ষা, বাণিজ্য ও বিনিয়োগ, যা ইরাকের প্রধান ক্ষেত্র গুলিতে করা হতে পারে, যেমন জ্বালানী শক্তি ও পরিষেবা.