মস্কোয় বিশ্ব দাবার মুকুটের লড়াই শুরু হয়েছে. বিশ্বের সেরা দাবা খেলোয়াড় নিরুপণের জন্য খেলবেন বর্তমানের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ভারতের বিশ্বনাথন আনন্দ ও ইজরায়েলের প্রতিদ্বন্দ্বী বরিস গেলফান্ড.

    ১৯৮৫ সালে শেষবার রাশিয়ার রাজধানীতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়ার খেলা হয়েছিল. সেবারে মুকুটের জন্য লড়াই করেছিলেন আনাতোলি কার্পোভ ও গ্যারি কাসপারভ. তাদের প্রতিদ্বন্দ্বিতার নাম দেওয়া হয়েছিল শতকের খেলা নামে. বর্তমানের বিশ্বনাথন আনন্দ ও বরিস গেলফান্ডের খেলা শুরু হওয়ার আগে থেকেই এক বিরল ঘটনা হয়েছে. ইতিহাসে এই প্রথমবার তা হতে চলেছে, বিশ্বের এক সবচেয়ে বড় জাদুঘরে, এই কথা উল্লেখ করে আন্তর্জাতিক দাবা ফেডারেশনের সভাপতি কিরসান ইল্যুমঝিনভ বলেছেন:

    “রাশিয়ার দাবা ফেডারেশন মস্কোর ত্রেতিয়াকভস্কি গ্যালারির নাম প্রস্তাব করেছিল. তাদের আবেদন পত্রে লেখা হয়েছিল বেশী করে পুরস্কার অর্থের ঘোষণা – আর জায়গা – সেটা তো খুবই ইন্টারেস্টিং, একেবারেই অন্য রকমের. দাবা – এটা একই সঙ্গে সংস্কৃতি, বিজ্ঞান ও খেলার সমন্বয়, তাই আমরা ঠিক করেছি তা ত্রেতিয়াকভস্কি গ্যালারিতেই করার – এর ফলে যেমন দাবার প্রতি, তেমনই ছবি, যা এখানে রয়েছে, তার প্রতিও আগ্রহ আকর্ষণ করা সম্ভব হবে”.

    এই খেলার আয়োজকরা, জাদুঘরের প্রযুক্তিগত সম্ভাবনা মূল্যায়ন করে, ঠিক করেছেন যে, এই প্রাসাদ ঘোষিত কার্যের জন্য সবচেয়ে বেশী ভাল হতে পারে, তাই রাষ্ট্রীয় ত্রেতিয়াকভস্কি গ্যালারির জেনারেল ডিরেক্টর ইরিনা লেবেদেভা বলেছেন:

    “বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ও তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী দুজনেই এই গ্যালারির ঘর গুলি ঘুরে দেখেছেন, আর যখন তাঁরা ত্রেতিয়াকভস্কি গ্যালারির প্রদর্শনী দেখতে পেয়েছেন, তখনই যেন মুগ্ধ হয়ে অভিভূত হয়ে গিয়েছিলেন, নিজেদের চারপাশের ছবি দেখতে শুরু করেছিলেন, আর যেতেই চাইছিলেন না. আমরা বুঝতে পেরেছিলাম যে, এটা সত্যিই একটা উল্লেখ যোগ্য ঘটনা হতে চলেছে, যা হবে খুবই সফল ও চিত্তাকর্ষক”.

    গ্র্যান্ড মাস্টারদের খেলতে হবে ১২ টি রাউন্ড নিয়মিত নিয়ম মেনে, যদি ফল সমান হয়, তবে খেলতে হবে আরও চারটি রাউন্ড কম সময়ের মধ্যে, তারপরেও যদি না হয়, তবে দুটি অত্যন্ত দ্রুত ম্যাচ. যদি তার পরেও বিজয়ী নির্ধারণ করা সম্ভব না হয়, তবে এই ধরনের দ্রুত খেলা চলবে ১০ রাউন্ড অবধি. যদি এর পরেও কে চ্যাম্পিয়ন ঠিক করা না যায়, তবে হবে শেষ ম্যাচ, যেখানে সাদা ঘুঁটি, যার, তাঁকে দেওয়া ভাবার জন্য পাঁচ মিনিট করে সময়, আর যার কালো ঘুঁটি তাঁকে দেওয়া হবে চার মিনিট করে সময়. তবে সাদাকে শুধু জিততেই হবে. ড্র হলে বিজয়ী হবে কালো.

    বেলা তিনটের সময়ে আজ খেলা শুরু হয়েছে. এই প্রতিযোগিতার সরকারি সাইটে ও ইউ টিউবে খেলার সরাসরি প্রচার করা হচ্ছে, যাতে বিবরণ দেওয়া হচ্ছে রুশী ও ইংরাজী ভাষায়. বাজী লাগানো হয়েছে ২৫ লক্ষ পঞ্চাশ হাজার ডলারের, তার মধ্যে বিজয়ী পাবেন শতকরা ৬০ ভাগ, আর যিনি হারবেন, তিনি পাবেন শতকরা ৪০ ভাগ. আজ ১১ই মে সাদা ঘুঁটি নিয়ে খেলতে শুরু করেছেন আনন্দ.