সেই দেশের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ফিলিপ হ্যামন্ড এই ঘোষণা করেছেন, এই কাজ করা হবে ক্যাথলিক বড়দিনের উত্সবের আগে. এর পরে আফগানিস্তানে ব্রিটেন থেকে সৈন্য থাকবে সংখ্যায় নয় হাজার. প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর কথামতো, আফগানিস্তানের সেনা বাহিনী ও পুলিশ শান্তি রক্ষার কাজে যথেষ্ট উন্নতি করেছে. আগে যেমন জানানো হয়েছিল যে, ন্যাটো জোটের মূল বাহিনী ২০১৪ সালের শেষে আফগানিস্তান ছেড়ে চলে আসবে, তার পরে দেশের সীমান্ত রক্ষা ও শৃঙ্খলা রক্ষার ভার থাকবে দেশের সরকারের উপরে.