ইস্রাইলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু দাবি করেছেন, ইরান যেন সম্পূর্ণভাবে বন্ধ করে ইউরেনিয়াম পরিশোধনের সমস্ত কর্মসূচি. এ সম্বন্ধে তিনি বলেন মার্কিনী “সি.এন.এন” টেলি-চ্যানেলকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে. সেই সঙ্গে নেতানিয়াহু সঠিক করে বলেন যে, তেহেরানের উচিত্ ৩ শতাংশ পর্যন্ত ইউরেনিয়াম পরিশোধন থামানো, কারণ তা শান্তিপূর্ণ উদ্দেশ্যে পারমাণবিক জ্বালানী হিসেবে ব্যবহৃত হতে পারে. তাঁর মতে, ইরানের তাছাড়া ফোর্দো-তে ভূগর্ভস্থ পারমাণবিক প্রকল্প ধ্বংস করা উচিত্, যেখানে ইউরেনিয়াম ২০ শতাংশ পর্যন্ত পরিশোধন করা হচ্ছে. ইরান এবং আন্তর্জাতিক মধ্যস্থ “ছয় দেশ” (রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য পাঁচটি দেশ এবং জার্মানি) আগে এপ্রিলে ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচি নিয়ে আলাপ-আলোচনা পুনরারম্ভ করেছিল. পক্ষদ্বয় দেড় বছরের বিরতির পর প্রথম সাক্ষাতের ফলাফলে সন্তোষ প্রকাশ করেছে, দ্বিতীয় সাক্ষাত্ নির্ধারিত হয়েছে মে মাসের দ্বিতীয়ার্ধে. নেতানিয়াহু এমন দীর্ঘ বিরতিকে ইরানের জন্য উপহার বলে অভিহিত করেন, এ কথা বলে যে, তেহেরান এ সময় ব্যবহার করছে পারমাণবিক কাজকর্ম তাড়াতাড়ি করে করার জন্য. আগে ইস্রাইলী প্রধানমন্ত্রী ইরানের পারমাণবিক প্রকল্পের উপর প্রতিষেধমূলক আগাত হানার প্রয়োজনীয়তার কথা বলেছিলেন, যে পারমাণবিক বোমা বানানোর “খুব কাছাকাছি পৌঁছেছে”.