রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দমিত্রি মেদভেদেভ দেশে অর্থনৈতিক ও নাগরিক স্বাধীনতা বিকাশকে নিজের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কর্তব্য বলে মনে করেন. তিনি সোমবার ক্রেমলিনে রাষ্ট্রনেতার পদে তাঁর অবস্থানের ফলাফল সংক্রান্ত রাষ্ট্রীয় পরিষদের পরিবর্ধিত বৈঠকে বক্তৃতা দেন. রাষ্ট্রপতি জোর দিয়ে বলেন, “প্রত্যেকের জন্য বেশি স্বাধীনতা – এটাই আমার লক্ষ্য ছিল এবং এখনও রয়েছে”. একই সঙ্গে তিনি উল্লেখ করেন যে, রাশিয়ায় “স্বাধীনতা” ও “শৃঙ্খলা” এ দুই উপলব্ধিকে পরস্পরের বিপরীতে স্থাপন করা ঠিক নয়. মেদভেদেভের কথায়, ভাবী সরকারের প্রাধান্য হবে মুদ্রাস্ফীতি, দৈন্য ও বেকারীর বিরুদ্ধে সংগ্রাম. মন্ত্রী পরিষদের কর্ণ পরিকল্পনা রাষ্ট্রীয় দমায় পেশ করা হবে নতুন প্রধানমন্ত্রীকে নিযুক্ত করার প্রক্রিয়ার কাঠামোতে. তা ঘটবে ৭ই মে-র পরে, যখন রাশিয়ার রাষ্ট্রপতির পদে অধিষ্ঠিত হবেন ভ্লাদিমির পুতিন.