পরপর কযেকটি বিমান সংক্রান্ত দুর্ঘটনার জন্য পাকিস্তানের সরকার রবিবার থেকে সমস্ত স্থানীয় ব্যক্তিগত মালিকানার কোম্পানীর বিমান চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে. প্রয়োজনীয় নির্দেশ প্রকাশ করেছেন পাকিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী চৌধুরী আহমদ মুখতার.

     রবিবারে দিনের বেলা একই সঙ্গে দুটি যাত্রাবাহী বিমান জরুরী অবতরণে বাধ্য হয়েছিল. করাচি আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে একটি বোয়িং ৭৩৭ প্যাসেঞ্জার বিমান ইসলামাবাদ থেকে উড়ে এসে নামার সময়ে চাকা বের করতে সমস্যায় পড়ে, অবতরণের সময়ে একসঙ্গে অনেকগুলি চাকা ফেটে যায় ও বিমানটি একদিকে কাত হয়ে গিয়েছিল. পাইলটদের সম্মিলিত চেষ্টায় বিমানটি উল্টে যায় নি ও কেউ হতাহত হয় নি.

     প্রায় একই সময়ে পাকিস্তানের অন্য একটি শহর লাহোরে একটি উড়তে তৈরী হওয়া বিমানে জ্বালানী চুঁইয়ে পড়া ধরা পড়েছিল. সঙ্গে সঙ্গে সকলকে বিমান থেকে নামিয়ে নিয়ে আসা হয় ও উড়ান বাতিল করে দেওয়া হয়.

     বর্তমানে পাকিস্তানে তিনটি ব্যক্তিগত মালিকানার কোম্পানী প্রধান – “শাহীণ”, “এয়ারব্লু” ও “বোঝা এয়ালাইনস”, যারা দেশের ভিতরে প্রায় তিরিশ শতাংশ বিমান পরিবহনের কাজ করছিল.