রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দ্বারা সোমবার প্রচারিত খবরে বলা হয়েছে যে, রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সুদান এবং দক্ষিণ সুদানকে সামরিক সঙ্ঘর্ষ এড়ানোর আহ্বান জানিয়েছে. মস্কো তাছাড়া, উভয় পক্ষকে আলাপ-আলোচনা পুনরারম্ভ করার আহ্বান জানিয়েছে, যাতে বিতর্কিত প্রশ্নে পরস্পরের পক্ষে গ্রহণযোগ্য মীমাংসা খুঁজে বার করা যায়. আগে জানানো হয়েছিল যে, দক্ষিণ সুদান নিজের বাহিনী অপসারণ করেছে বিতর্কিত হেগলিগ অঞ্চল থেকে, যেখানে তেলের বড় বড় খনি আছে. পরে সুদান এ এলাকায় নিজের নিয়ন্ত্রণ পুনর্স্থাপন করে. এইভাবে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতির ১২ই এপ্রিলের বিবৃতির একটি মুখ্য ধারা পালিত হয়েছে, যা সুদানের উভয় পক্ষের কাছে আন্তর্জাতিক জনসমাজের দাবিতে সূত্রবদ্ধ, জোর দিয়ে বলা হয়েছে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে. প্রসঙ্গত, দু রাষ্ট্রের সীমান্ত অঞ্চলে উত্তেজনাপূর্ণ পরিস্থিতি বজায় রয়েছে. মস্কোয় আশা করা হচ্ছে যে, খার্তুম  এবং জুবা রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের সমস্ত নির্দেশ পূর্ণ পরিসরে পালন করবে, সেই সঙ্গে পরস্পরের আভ্যন্তরীন ব্যাপারে হস্তক্ষেপ থেকে এবং সশস্ত্র বিরোধীপক্ষের প্রতি সমর্থন থেকে বিরত থাকবে, যোগ করে বলা হয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে.