স্বাস্থোদ্ধারকেন্দ্র-শহর শার্ম-এল-শেখে সমুদ্রের তীরে হাঙর দেখা গেছে. দেশের প্রকৃতিরক্ষা মন্ত্রণালয় গতকাল সন্ধ্যাবেলায় হাঙরের আক্রমণের সম্ভাবনা সম্পর্কে সতর্ক করে দিয়েছে. মন্ত্রণালয় প্রদত্ত তথ্য অনুয়ায়ী, ২,৫ মিটার লম্বা হাঙরটাকে ‘নামা-বে’ বীচের কাছে অগভীর জলে দেখা গেছে. সাধারনতঃ এরকম আকারের হাঙরেরা থাকে অন্ততঃ ১৫০ মিটার জলের গভীরে. বিশেষজ্ঞদের মতে, এটা অস্বাভাবিক ও বিপজ্জনক. তবে আপাততঃ স্নানার্থীদের মধ্যে ভীতির সঞ্চার হয়নি. ২০১০ সালের ডিসেম্বরে শার্ম-এল-শেখে হাঙররা ৫ বার স্নানার্থীদের আক্রমণ করেছিল, যার পরে দীর্ঘদীনের জন্য বীচগুলি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল. সে সময় এক জার্মান মহিলা পর্যটক হাঙরের কামড়ে মারা যায়, আরও তিনজন রুশী নাগরিক সহ ৪ জন জখম হয়েছিল. সেই সময় বিশেষজ্ঞরা শিকারী হাঙরের আক্রমণের আসল কারণ নির্ণয় করতে পারেননি. তাদের ধারনা ছিল, যে স্নানার্থীরা হাঙরগুলোকে খাবার দিত.