রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সম্পাদক বান কি মুন প্রস্তাব দিয়েছেন যে, সিরিয়ায় আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষকদের মিশনের কাজের মেয়াদ যেন তিন মাস হয়, আর পর্যবেক্ষকদের সংখ্যা যেন ৩০০ জন পর্যন্ত বাড়ানো হয়. এ সম্বন্ধে বলা হয়েছে সিরিয়ার পরিস্থিতি সংক্রান্ত রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের কাছে বান কি মুনের লিখিত আবেদনে. সাধারণ সম্পাদক মনে করেন যে, সিরিয়ায় ৩০০ জন পর্যবেক্ষকের কাজ “অগ্রগতি অর্জনের সুযোগ” হয়ে উঠবে. আগে বলা হয়েছিল যে, নিরাপত্তা পরিষদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী রাষ্ট্রসঙ্ঘ সিরিয়ায় ২৫০ জন পর্যবেক্ষককে পাঠানোর পরিকল্পনা করছে. সাধারণ সম্পাদকের কথায় পক্ষগুলি অগ্নি সংবরণের শর্ত যথেষ্ট ভাবে পালন করছে না, তবে পরিস্থিতি উন্নতির সুযোগ আছে. বিগত কয়েক দিন ধরে যেমন সরকারী বাহিনীর তরফ থেকে গুলি চালানোর খবর আসছে, তেমনই সশস্ত্র বিরোধীপক্ষের তরফ থেকে হিংসাত্মক ক্রিয়াকলাপের খবর আসছে. এর প্রাক্কালে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ বান কি মুন-কে আহ্বান জানান সিরিয়ায় পর্যবেক্ষক মিশনের প্যারামিটার সংক্রান্ত সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদে পেশ করতে দেরি না করার, এ মিশনের কর্তব্য হবে অগ্নি সংবরণের ব্যবস্থা নিয়ন্ত্রণ করা.