দক্ষিণ কোরিয়া দূর পাল্লার রকেট ব্যবস্থা স্থাপন করেছে, যা উত্তর কোরিয়ার ভূভাগে যেকোনো রকেট ও পারমাণবিক প্রকল্প ধ্বংস করতে সক্ষম. এ সম্বন্ধে জানানো হয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ে. এ মন্ত্রণালয়ে সঠিক করে বলা হয়েছে যে, এ ব্যবস্থা গৃহীত হয়েছে পিয়ং ইয়ংয়ের রূঢ় প্ররোচনার উত্তরে. বিরোধ দেখা দিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রপতি লি মেন বাকের এ উক্তিকে কেন্দ্র করে যে, ১৩ই এপ্রিল উত্তর কোরিয়া স্পুতনিক প্রেরণের জন্য ৮৫ কোটি ডলার খরচ করেছে. তাঁর কথায়, এ অর্থে দেশের খাদ্য সমস্যা মীমাংসা করা যেত. উত্তর কোরিয়ার সমরসেবীরা, নিজেদের তরফ থেকে, দক্ষিণ কোরিয়ার বিরুদ্ধে "পবিত্র যুদ্ধ" শুরু করার ভয় দেখিয়েছে, যদি দক্ষিণ কোরিয়া এ ভুল খবরের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা না করে.