পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিনা রব্বানি খার এ অভিযোগ খণ্ডন করেছেন যে, পাকিস্তানী কর্তৃপক্ষ নাকি পাকিস্তানের ভূভাগে সন্ত্রাসবাদী নেতা উসামা বিন লাদেনের অবস্থিতির কথা জানত এবং এ খবর লুকিয়ে রেখেছিল. তিনি উল্লেখ করেন যে, “অতি বিশদ তদন্ত” চালানো হয়েছিল, এবং পাকিস্তানের সরকারে কেউ এর সঙ্গে জড়িত বলে প্রকটিত হয় নি. উসামা বিন লাদেন-কে হত্যা করা হয় ২০১১ সালের ২রা মে, ইস্লামাবাদের উপকণ্ঠে মার্কিনী নৌ-সৈনিকদের দ্বারা বিশেষ অভিযান পরিচালনার সময়. পরে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ তোলা হয় যে, কর্তৃপক্ষ নাকি জানত যে, বিন লাদেন পাকিস্তানের ভূভাগে লুকিয়ে আছে.