0কাবুলে এবং আফগানিস্তানের একসারি প্রদেশে তালিবদের ব্যাপক পরিসরের আক্রমণের দরুণ শুধু এই ঘটতে পারে যে, দেশে বিদেশী বাহিনীর উপস্থিতি প্রলম্বিত হতে পারে. এ সম্বন্ধে মঙ্গলবার জঙ্গীদের প্রতি আবেদনে বলেছেন দেশের রাষ্ট্রপতি হামিদ কার্জাই. কার্জাই তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে বলেন, “আপনারা কিছুই করেন নি ইসলামের জন্য, আফগানিস্তানের স্বাধীনতা, মুক্তি ও বিকাশের জন্য, দেশের জনগণের জন্য”. কাবুলে এবং তিনটি প্রদেশে – নঙ্গরহার, লোগার এবং পাক্তিয়ায় – ১৫ই এপ্রিল তালিবরা একসারি আক্রমণ চালিয়েছিল, ফলে নিহত হয়েছে ৪৭ জন. বিশেষ করে, কাবুলে ১৮ ঘন্টা ব্যাপী আক্রমণের সময় চরমপন্থীদের লক্ষ্যস্থল ছিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, গ্রেট-বৃটেন, ফেডারেল জার্মানিও জাপানের কূটনৈতিক মিশন, রাষ্ট্রসঙ্ঘের মিশন, এবং তাছাড়া আফগানিস্তানে নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করার আন্তর্জাতিক বাহিনীর সদর দপ্তর. এর প্রাক্কালে হামিদ কার্জাই বলেন যে, তালিবদের প্রবল আক্রমণ গোয়েন্দা বিভাগের, সর্বপ্রথমে ন্যাটো জোটের গোয়েন্দা বিভাগের কাজের ত্রুটির প্রমাণ.