সিরিয়ার বিরোধীপক্ষ বর্তমান রাষ্ট্রপতি বাশার আসদের সাথে আলাপ-আলোচনার টেবিলে বসতে পারে, যদি তিনি রক্তক্ষয়ে নিজের জড়িত না থাকা প্রমাণ করতে পারেন. এ সম্বন্ধে মস্কোয় সাংবাদিক সম্মেলনে বলেছেন সিরিয়ার বিরোধী জাতীয় সঙ্গতি সাধন কমিটির প্রতিনিধিদলের সদস্য আব্দুলাজিজ আল-হাইয়ের. সেই সঙ্গে তিনি যোগ করে বলেন যে, বিরোধীপক্ষের মতে, সিরিয়ার রাষ্ট্রপতির উপর আপাতত দায়িত্ব আরোপিত হচ্ছে দেশে রক্তক্ষয়ের জন্য. তাছাড়া, বিরোধী কমিটির প্রতিনিধি জোর দিয়ে বলেন যে, রাষ্ট্রসঙ্ঘ ও আরব রাষ্ট্র লীগের বিশেষ প্রতিনিধি কোফি আননের পরিকল্পনা হল সিরিয়া সঙ্কটের শান্তিপূর্ণ মীমাংসার শেষ সুযোগ. তিনি মনে করিয়ে দেন যে, এ পরিকল্পনা সঙ্ঘর্ষের সমস্ত পক্ষের দ্বারা অনুমোদিত হয়েছে, এবং তাছাড়া রাষ্ট্রসঙ্ঘ, রাশিয়া ও চীনের দ্বারাও. তাছাড়া, কমিটিতে বেশি ইস্লামিকরণের দিকে সিরিয়ার এগিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা বাদ দেওয়া হয়েছে. সিরিয়ার বিরোধীপক্ষ তাছাড়া ঘোষণা করেছে যে, সিরিয়ায় অগ্নি সংবরণের উদ্যোগ আসা উচিত্ দেশের বর্তমান কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে. সেই সঙ্গে বিরোধীপক্ষ মনে করে যে, দেশে সঙ্কটের শান্তিপূর্ণ মীমাংসায় রাশিয়া সাহায্য করতে পারে. সিরিয়ার বিরোধীপক্ষ এ বিষয়ে সন্তোষ প্রকাশ করে যে, সিরিয়ায় একনায়ক শাসন ব্যবস্থা বিদ্যমান থাকার ধারণা রাশিয়া সমর্থন করে না.