মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বর্তমানে ইরানের বিরূদ্ধে আরোপিত বাধানিষেধ প্রত্যাহারের বিষয় বিবেচনা করছে না. ওয়াশিংটনে আয়োজিত ব্রিফিংয়ে এই সম্পর্কে বলেছেন বিদেশ দপ্তরের মুখপাত্র মার্ক টোনার. গত শনিবার ইস্তাম্বুলে ইরানের পারমানবিক প্রকল্প সমস্যার প্রশ্নে আরও এক দফা ছয়পাক্ষিক বৈঠক হয়ে গেল. ঠিক হয়েছে, যে মে মাসে বাগদাদে আবার এ ব্যাপারে বৈঠক হবে. বিদেশ দপ্তরের মুখপাত্রের কথায়, আমেরিকা এই বৈঠককে সত্যিকারের অগ্রগতির পথে প্রথম পদক্ষেপ হিসাবে গণ্য করে. টোনার উল্লেখ করেছেন, যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র উপলব্ধি করেছে, যে বিশ্ব জনসমাজের ইরানের পারমানবিক প্রকল্পের বিষয়ে মাথাব্যাথা দূর করার জন্য কিছু সময়ের প্রয়োজন. এর প্রাক্কালে মার্কিনী রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামা কলম্বিয়ার কারতাখেনে ঘোষণা করেন, যে বৈঠক যদি ব্যর্থ হয়, তাহলে ইরানের বিরূদ্ধে বিধিনিষেধ আরও কড়া করা হবে. ইতিপূর্বে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ বলেছিলেন, যে ইরানের পারমানবিক প্রকল্পের প্রশ্নের সমাধান হওয়া উচিত ধাপে ধাপে.