জাপানের প্রাক্তন পররাষ্ট্রমন্ত্রী, ক্ষমতাসীন গণতান্ত্রিক পার্টির অন্যতম নেতা সেইজি মায়েহারা ২৯শে এপ্রিল থেকে ৪ঠা মে-র মাঝে মস্কো সফরের পরিকল্পনা করছেন. এ সফরের সময় রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভের সাথে কুরিল সম্পর্কে আলোচনা নির্ধারিত হয়েছে, জানিয়েছে জাপানের প্রচার মাধ্যম. মায়েহারা ভূভাগীয় প্রশ্নে “মত বিনিময়ের” আশা করেন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভের সাথে, রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিদের সাথে, এবং তাছাড়া প্রধানমন্ত্রী ভ্লাদিমির পুতিনের দলের সদস্যদের সাথে, কারণ ভ্লাদিমির পুতিন ৭ই মে আবার ক্রেমলিনে ফিরে আসবেন, উল্লেখ করেছে প্রচার মাধ্যম. আগে জানানো হয়েছিল যে, জাপানের কর্তৃপক্ষ পুতিনের রাষ্ট্রপতি পদে থাকা কালে কুরিল দ্বীপপুঞ্জে রাশিয়ার চারটি দ্বীপকে কেন্দ্র করে তথাকথিত “ভূভাগীয় বিতর্ক” মীমাংসার আশা প্রকাশ করেছিল. জাপান কুরিল দ্বীপপুঞ্জের ইতুরুপ, কুনাশির, শিকোতান ও হাবামাই এই চারটি দ্বীপের দাবি করছে, ১৮৫৫ সালের সীমানায় বাণিজ্য সংক্রান্ত দ্বিপাক্ষিক দলিলের উদ্ধৃতি দিয়ে. মস্কোর স্থিতি হল এই যে, দক্ষিণ কুরিল দ্বীপগুলি সোভিয়েত ইউনিয়নের অন্তর্ভুক্ত হয়েছিল  দ্বিতীয় বিশ্ব যুদ্ধের ফলাফলের ভিত্তিতে, এবং এ দ্বীপগুলির উপর রাশিয়ার সার্বভৌমত্ব তত্সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক বিধান অনুযায়ী নথিভুক্ত, যা সন্দেহের অবকাশ রাখে না.