রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ মঙ্গলবার মস্কোয় সিরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়ালিদ মুয়াল্লেমের সাথে আলাপ-আলোচনা করবেন. রাশিয়ায় সিরিয়ার রাষ্ট্রদূত রিয়াদ হাদ্দাদ “ইন্টারফাক্স” সংবাদ এজেন্সিকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে জানান যে, রাশিয়ায় মুয়াল্লেমের সফরের উদ্দেশ্য হল সর্ব পাক্ষিক সংলাপের মাধ্যমে সিরিয়া সঙ্কট মীমাংসার পথ সম্বন্ধে রাশিয়ার পক্ষের সাথে পরামর্শ ক্রমানুবর্তন করা. হাদ্দাদ উল্লেখ করেন যে, এ সফর অনুষ্ঠিত হচ্ছে সিরিয়া সঙ্কট মীমাংসার আন্তর্জাতিক প্রচেষ্টার কাঠামোতে. তাঁর কথায়, রাশিয়া “খুব ভাল ভাবেই বোঝে এ সঙ্কটের চরিত্র”. একই সঙ্গে হাদ্দাদ বলেন যে,  মুয়াল্লেমের এ সফরের সাথে বিরোধীপক্ষের প্রতিনিধিদের মস্কোয় আসার কোনো সম্পর্ক নেই. গত সপ্তাহে লাভরোভ বলেন যে, মস্কোয় সিরিয়ার আভ্যন্তরীণ বিরোধীপক্ষের দুটি প্রতিনিধিদলের অপেক্ষা করা হচ্ছে. আশা করা হচ্ছে যে, সিরিয়ার বিরোধীপক্ষের প্রতিনিধিরা রাশিয়ায় আসবেন ১৭-১৮ই এপ্রিল. এদিকে ১০ই এপ্রিল সিরিয়ার শহরগুলি থেকে সৈন্যবাহিনী ও ভারী প্রযুক্তি অপসারণ সম্পর্কে সিরিয়া সংক্রান্ত রাষ্ট্রসঙ্ঘ ও আরব রাষ্ট্র লীগের বিশেষ প্রতিনিধি কোফি আননের দ্বারা দামাস্কাসকে প্রস্তাবিত সময়-সীমা শেষ হচ্ছে. হাদ্দাদ “ইন্টারফাক্স” সংবাদ এজেন্সিকে দেওয়া ইন্টারভিউতে বলেন যে, ১০ই এপ্রিল নাগাদ সিরিয়ার কর্তৃপক্ষ বসতি কেন্দ্রগুলিতে নিজেদের সামরিক উপস্থিতি শুধু কমাতে প্রস্তুত. আগে দামাস্কাস বলেছিল যে, তাদের দ্বারা নিয়ন্ত্রণে আনা বসতি কেন্দ্রগুলি থেকে সৈন্যবাহিনী অপসারণ করবে না, যতদিন না সশস্ত্র দলগুলির প্রতিনিধিরা অগ্নি সংবরণ সম্বন্ধে লিখিত গ্যারান্টি না দিচ্ছে. বিরোধীপক্ষের সিরিয়ার স্বাধীন বাহিনী সরকারী বাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াই করছে, এবং তারা এমন গ্যারান্টি দিতে অস্বীকার করেছে, তবে১০ই এপ্রিল থেকে অগ্নি সংবরণের প্রস্তুতির কথা ঘোষণা করেছে.