উত্তর কোরিয়া থেকে কৃত্রিম উপগ্রহ উড়ান নিয়ে প্রতিক্রিয়া প্রকাশের বিষয়ে রাশিয়া আন্তর্জাতিক সমাজকে নিজেদের প্রতিক্রিয়া প্রকাশের মাত্রা সম্বন্ধে ভেবে দেখতে আহ্বান করেছে, এই কথা জানিয়েছেন রাশিয়ার উপ পররাষ্ট্র মন্ত্রী সের্গেই রিয়াবকভ. আমরা কোন ভাবেই গোপন করছি না এই ধরনের পরিকল্পনা সম্পর্কে আমাদের গভীর উদ্বেগ, আমরা মনে করি এই কাজ করা হচ্ছে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের সিদ্ধান্তের পুরোপুরি অমান্য করে. আবার একই সময়ে আমরা মনে করি, যে যদি এই উড়ান সম্ভব হয়, তবে সে ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ হবে সঠিক ও  নির্দিষ্ট ভাবে আন্তর্জাতিক সমাজের প্রতিক্রিয়া প্রদর্শন. আমাদের জাপানী সহকর্মীদের সঙ্গে স্পষ্ট আলোচনা এই প্রসঙ্গে হয়েছে, আর আমরা মনে করি না যে, টোকিওর সঙ্গে রাজনৈতিক দিক থেকে আমাদের কোন রকমের মত বিরোধ অথবা অমিল রয়েছে, - জাপানে স্থিতিশীলতা রক্ষার স্ট্র্যাটেজি নিয়ে আরও একটি রাউণ্ড আলোচনার পরে এই কথা সাংবাদিকদের বলেছেন রিয়াবকভ. উত্তর কোরিয়া পরিকল্পনা করেছে ১২ থেকে ১৬ই এপ্রিলের মধ্যে কৃত্রিম উপগ্রহ উড়ানের, আর এই ঘটনাকে তারা উত্সর্গ করতে চাইছে, এই দেশের স্রষ্টা কিম ইর সেনের জন্ম শতবর্ষ উপলক্ষে. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়া মনে করে যে, উত্তর কোরিয়ার পক্ষ থেকে কৃত্রিম উপগ্রহ সহ রকেট নিক্ষেপ, রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের ১৭১৮ ও ১৮৭৪ নম্বর সিদ্ধান্তের পরিপন্থী, যেখানে উত্তর কোরিয়াকে নিষেধ করা হয়েছে ব্যালিস্টিক প্রযুক্তি সহ রকেট নিক্ষেপ করা. রাশিয়া ও ফ্রান্স এই প্রসঙ্গে উত্তর কোরিয়ার সমালোচনা করেছে.