গত সপ্তাহে মস্কো ও ওয়াশিংটনের পারস্পরিক ক্ষেত্রে নতুন নতুন ঘটনাবলীর হদিস পাওয়া গেল. দমিত্রি মেদভেদেভ আরও একবার আমেরিকার তরফ থেকে রাশিয়ার বিরূদ্ধে রকেটবিরোধী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা প্রয়োগ না করার গ্যারান্টী চেয়েছেন. তিনি উল্লেখ করেছেন, যে এটা পারমানবিক শক্তির বিন্যাসকে খর্ব করে. রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রক মস্কোয় ইউরো রকেটবিরোধী প্রতিরক্ষাব্যবস্থা সম্পর্কেবিশাল আন্তর্জাতিক সম্মেলন আয়োজন করার কথা ঘোষণা করছে. পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ আরও ঘৃতাহূতি দিয়েছেন, যে ভ্লাদিমির পুতিন নাকি তার নতুন পদাসনে অভিষিক্ত হওয়ার পরে বারাক ওবামার সাথে দেখা করার ব্যাপারে ঐক্যমতে পৌঁছেছেন. আর সরকারীভাবে রাশিয়া-ন্যাটো শীর্ষবৈঠক মুলতুবি রাখা হয়েছে, এই সম্পর্কে ন্যাটোর শীর্ষকর্তা অ্যান্ডার্স ফগ রাসসুমেন ঘোষণা করেছেন. দমিত্রি মেদভেদেভ, যিনি একাধিকবার সম্মিলিত রকেট-প্রতিরোধী ব্যবস্থা স্থাপণ করার উদ্যোগ উত্থাপণ করেন, অবশেষে স্বীকার করেছেন, যে রফায় আসার সব প্রচেষ্টা আপাততঃ বিফল হয়েছে.

     আমাকে শেষপর্যন্ত কেউই ব্যাখ্যা করেনি, যে কেন আমরা বিশ্বাস করবো, যে নতুন ইউরোপীয় রকেট-প্রতিরোধী ব্যবস্থা আমাদের দিকে তাক করে লাগানো হয়নি. বরং উল্টে আমাদের সবসময় বলা হয়, যে এ সবকিছু আপনাদের জন্যই, যেখানে চান ব্যবহার করতে পারেন. কি করে ব্যবহার করবো? এটা যে পারমানরিক শক্তির ভারসাম্যটাকেই দোদুল্যমান করে দিচ্ছে. এবং সত্যি কথা বলতে কি, আমার যেরকমই সম্পর্ক অন্য রাষ্ট্রনেতাদের সাথে থাকুক না কেন, ন্যাটোর সাথে রাশিয়ার সম্পর্খ যতই প্রগতিশীল হোক না কেন, আমাদের সবকিযু বিচারবিবেচনা করে দেখে সিদ্ধান্তে উপনীত হতে হবে. তবে এখনো কথাবার্ত চলছে, আলাপ-আলোচনার দুয়ার এখনো বন্ধ নয়.

    এই সপ্তাহের শুরুতে মনে হয়েছিল, যে পক্ষদ্বয়ের মধ্যে বোঝাপড়া বোধহয় সম্ভবপর. আমেরিকা রাশিয়াকে ইউরো রকেট-প্রতিরোধী ব্যবস্থা সম্পর্কিত তথ্যাবলী দিয়েছে, কিন্তু রুস পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মতে, ঐসব তথ্যাবলী মূল্যহীন.

     এই সপ্তাহে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ কমেরসান্ত এফ.এম. বেতারসংস্থাকে প্রদত্ত সাক্ষাত্কারে ব্যাখ্যা করে বলেছেন, যে কি ইউরো রকেট-প্রতিরোধী ব্যবস্থার ক্ষেত্রে রাশিয়ার অপছন্দ. তবে তিনি সেইসাথেই কূটনৈতিক স্বরে মন্তব্য করেছেন, যে মস্কো ও ওয়াশিংটন এই বিষয়ে সংলাপের জন্য প্রস্তুত. পুতিন ও ওবামা খুবশীঘ্রই ব্যক্তিগত সাক্ষাত্কারে সবচেয়ে কঠিন বিষয়গুলি নিয়ে আলোচনা করবেন.