গতকাল, রবিবার সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদপত্র ‘আল-বাআস’ ঘোষণা করেছে, যে দামাস্কাসে সন্ত্রাসমুলক হামলা দেশের শাসক কর্তৃপক্ষের পরিস্থিতি স্বাভাবিকীকরনের প্রচেষ্টা এবং কোফি আননের শান্তিবাহী দৌত্যকে ভন্ডুল করার প্রয়াস. সংবাদপত্রটির মতে, সন্ত্রাসবাদী হামলা করেছে তারাই, যারা বিদেশ থেকে আর্থিক সাহায্য পায় এবং তাদের বাইরে থেকে অস্ত্রশস্ত্র দিয়ে সাহায্য করা হয়ে থাকে. গত শনিবার দামাস্কাসে দুটি বিস্ফোরণের ফলে ২৭ জন নিহত হয়েছে এবং প্রায় ১০০ জন আহত হয়েছে. রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এই সন্ত্রাসবাদী হামলার তীব্র নিন্দা করেছে. রুশী পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঘোষণাপত্রে উল্লেখ করা হয়েছে, যে যেমুহুর্তে সিরিয়ার আভ্যন্তরীন সংকট অতিক্রম করার জন্য আন্তর্জাতিক জনসমাজ সক্রিয় উদ্যোগ নিয়েছে, সেইসময়েই উগ্রপন্থীরা আল-কায়িদার ঢংয়ে রক্তপাত করলো. সিরিয়ায় প্রায় এক বছর ধরে সংঘাত চলছে, তবে এই সময়ে রাজধানী দামাস্কাসের পরিস্থিতি আপাত নিরুদ্বেগ ছিল.