রাশিয়ার উপ পররাষ্ট্র মন্ত্রী গেন্নাদি গাতিলভ জানিয়েছেন যে, রাষ্ট্রসঙ্ঘে সিরিয়া প্রসঙ্গে সিদ্ধান্তের বিষয়ে রাশিয়া কূটনৈতিক স্তরে খসড়া নিয়ে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে. টুইটার সাইটে নিজের মাইক্রো ব্লগে তিনি বৃহস্পতিবারে লিখেছেন যে, এই আলোচনার লক্ষ্য একই রয়েছে- সিরিয়ার আভ্যন্তরীণ বিরোধে উভয় পক্ষের উপরেই এই সিদ্ধান্তের খসড়ায় একই ধরনের শর্ত আরোপ করা. গাতিলভ রাশিয়ার পক্ষ আরও সমর্থন করে জানিয়েছেন যে, এই দলিলে সিরিয়ার আভ্যন্তরীণ বিষয়ে বিদেশী শক্তি প্রয়োগের সম্ভাবনা যে কোন ক্ষেত্রেই হতে দেওয়া যাবে না.

       এর আগে জানানো হয়েছিল যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সিরিয়া নিয়ে একটি নতুন দলিলের খসড়া প্রস্তাব করেছে. এই দলিল মঙ্গলবারে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের রুদ্ধদ্বার কক্ষে স্থায়ী পাঁচটি সদস্য দেশ ও মরক্কোর প্রতিনিধির উপস্থিতিতে বিচার করা হয়েছিল. এই খসড়া প্রকল্পে “সিরিয়ার প্রশাসনের পক্ষ থেকে মিছিল করা লোকেদের উপরে শক্তি প্রয়োগ বন্ধ করার কথা বলা হয়েছে” ও সেখানে মানবিক ত্রাণ সামগ্রী পাঠানোর বিষয়ে স্বাধীন প্রবেশাধিকারের কথা বলা হয়েছে. তাছাড়া সিরিয়াতে মানবাধিকার লঙ্ঘণের বিষয়ে সমালোচনা করা হয়েছে.

আশা করা হয়েছে ১২ই মার্চ রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদে নিকটপ্রাচ্য নিয়ে আলোচনার সময়ে সিরিয়া প্রসঙ্গ উত্থাপিত হবে ও সেই বৈঠকে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রী সের্গেই লাভরভ উপস্থিতি থাকবেন.