আন্তর্জাতিক মহিলা দিবসে ফিনল্যান্ডে ঐতিহ্য মেনেই "বর্ষসেরা উদ্বাস্তু" পুরস্কার দেওয়া হয়েছে. এই বছরে ৪৬ বছর বয়সী ও পাঁচ সন্তানের জননী মালালাই রহিম এই পুরস্কার পেয়েছেন.

       তিনি সোভিয়েত দেশে চিকিত্সা বিদ্যা অধ্যয়ণ করেছিলেন এবং আফগানিস্তানে নিজের পেশায় তালিব প্রশাসন বহাল হওয়ার আগে পর্যন্ত কাজ করেছেন. তালিব প্রশাসন মহিলাদের পেশাগত কাজ করতে বারণ করার পরে তাঁকে এমনকি কাজ চালিয়ে যাওয়ার জন্য "গুলি করে মারার তালিকায়" অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছিল, তাই বাধ্য হয়ে তিনি দেশ ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন. এক সময়ে তিনি আফগানিস্তান- ইরান সীমান্তে উদ্বাস্তু শিবিরে একমাত্র চিকিত্সক ছিলেন. ২০০০ সালে ফিনল্যান্ডের সরকার তাঁকে ও তাঁর পরিবারকে উদ্বাস্তু স্বীকৃতী দিয়ে দেশে অভিবাসন দিয়েছিল, আর ২০০৭ সালে তিনি সেই দেশে চিকিত্সকের স্বীকৃতী আদায় করে বর্তমানে সেইনাইওকি শহরের কেন্দ্রীয় হাসপাতালে কাজ করছেন.

       মালালাই রহিমের কথামতো, তাঁর উন্নতিশীল দেশ গুলির স্বল্প শিক্ষিত মহিলাদের জন্য চিন্তা হয়. রহিম বিশেষ করে উল্লেখ করেছেন যে, বাড়ীর কাজ ও শিশুদের দেখাশোনা করা ছাড়াও মহিলাদের উচিত্ এই সমস্ত দেশে পড়া ও শিক্ষার অধিকার পাওয়া.